ঢাকা, বাংলাদেশ

বুধবার, জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪

English

রাজনীতি

জনগণকে দেখাতে গাজীপুরে সুষ্ঠু নির্বাচন সরকারের: খসরু

উইমেনআই২৪ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:২০, ২৬ মে ২০২৩; আপডেট: ১৫:৩৯, ২৬ মে ২০২৩

জনগণকে দেখাতে গাজীপুরে সুষ্ঠু নির্বাচন সরকারের: খসরু

ছবি: সংগৃহীত

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার সুষ্ঠু নির্বাচন দেখানোর চেষ্টা করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। দেশে এখন কোনো নির্বাচন আর নিরপেক্ষ হয় না। এটি দুঃখের বিষয়। তিনি বলেন, গাজীপুরের সিটি নির্বাচন নিয়ে অনেক কথা বলা হচ্ছে। একটি সুষ্ঠু নির্বাচন দেখাতে হবে চেষ্টা করেছে। সেই চেষ্টার ফলাফল আমরা দেখে ফেলেছি। এটা হচ্ছে বাংলাদেশের আসল চিত্র।

শুক্রবার (২৬ মে) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, দলবাজদের প্রভাব এত বেশি হয়ে গেছে যে বাংলাদেশে সাধারণ যারা সাংবাদিক রয়েছে, যারা প্রফেশনালি সাংবাদিক রয়েছে, যারা সাংবাদিকতার পেশা হিসেবে নিতে চায় তাদের স্পেস সীমিত হয়ে গেছে। দলবাজরা নির্লজ্জভাবে তৈল মর্দন করতে করতে সাংবাদিকদের বদনাম হচ্ছে। কিছু সাংবাদিকদের জন্য সমস্ত সাংবাদিকদের কলঙ্ক বহন করতে হচ্ছে।

আগামী নির্বাচন অবশ্যই নিরপেক্ষ সরকারের অধীন হতে হবে। আমীর খসরু বলেন, নির্বাচনের আলোচনা আসছে পরে। প্রথমে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে। দেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার আগে নির্বাচনী আলোচনা একটি ব্যর্থ আলোচনা।

তিনি বলেন, যারা দেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার আগে নির্বাচনী আলোচনার কথা বলছেন, তারা এই সরকারের পক্ষে কাজ করছেন।গণমাধ্যমের যতটুকু স্বাধীনতা আছে তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দমন করছে সরকার। কিছু মানুষের জন্য আজ সাংবাদিকরা হুমকির মুখে আছেন। অনেকে দেশ ছেড়ে চলে গেছেন। কিন্তু সাংবাদিকতায় মানদন্ড ফিরিয়ে আনতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, যুক্তরাষ্ট্র থেকে যে ভিসা নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে, সেখানে গণমাধ্যমের দায়িত্ব ও নির্বাচন সুষ্ঠু করার কথা বলা হয়েছে। তার মানে হলো, সাংবাদিকদের অংশ গ্রহণ ছাড়া গণতন্ত্র, মানবাধিকার, ভোটাধিকার, আইনের শাসন, জীবনের নিরাপত্তা, বাকস্বাধীনতা কোনোটিই অর্জন সম্ভব নয়।

দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনা না গেলে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আসতেই থাকবে।

এ সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, গণমাধ্যমের যতটুকু স্বাধীনতা আছে তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে দমন করছে সরকার। সাগর রুনি হত্যার তদন্ত  প্রতিবেদনের মধ্যে এমন কিছু আছে যা প্রকাশ করতে সরকার ভয় পায়। সংগঠনের সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নেতা কাদের গণি চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন বাদশা, আবুল কালাম আজাদ, ইলিয়াস হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম তপুসহ রিপোর্টাস ইউনিটির সদস্যরা।


 

//জ//

অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন সাবিনা-রিতুরা

মাঝরাতে জবি মসজিদে ঘুমন্ত ছাত্রী!

এখনও বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন সোয়া কোটির বেশি গ্রাহক

ফেসবুকে এমপি আনারের মেয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

অনলাইন যৌন হেনস্তার শিকার ৩০ কোটিরও বেশি শিশু

ইন্দোনেশিয়ায় স্বর্ণপদক জিতলেন বাংলাদেশের নারীরা

ভাইরাল ছবিটি নিয়ে যা জানা গেল

ডিএসইসি এর সাথে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় 

এমপি আনারের দেহাংশ উদ্ধারের দাবি

স্ত্রী-সন্তানসহ বেনজীরকে দুদকে তলব

ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিলো ইউরোপের তিন দেশ

হানিট্রাপে হত্যার শিকার আনার, শিলাস্তির গ্রামের বাড়ি শূনশান

ধানের দাম কমায় সরবরাহ ঘাটতি আশুগঞ্জ মোকামে

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হলেন হালিমা আক্তার

আজিজ, বেনজীরে অস্বস্তিতে নেই সরকার: কাদের