ঢাকা, বাংলাদেশ

রোববার, মাঘ ১৬ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

English

বৃত্তের বাইরে

দুর্গাপুরে আদিবাসীদের হারিয়ে যাওয়া তাঁত শিল্প ফিরেছে নতুন ধারায়

প্রকাশিত: ০০:০০, ৩০ মে ২০২২; আপডেট: ১৭:২৪, ১৬ জুলাই ২০২২

দুর্গাপুরে আদিবাসীদের হারিয়ে যাওয়া তাঁত শিল্প ফিরেছে নতুন ধারায়

শাহীন মোলহেম: আদিবাসীদের রয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতি, রয়েছে নিজস্ব পোশাক শিল্প আর বাদ্যযন্ত্র। অতিতে আদিবাসীরা তাদের নিজস্ব পোশাকা গয়না ভারতের মেঘালয় থেকে আমদানি করতেন। কালের পরিবর্তনে তারা নিজেরাই দেশে শুরু করেন নিজেদের পরিধানের পোশাক। নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার আদিবাসী খ্যাত অঞ্চল বিরিশিরির মহিলা সমবায় সমিতির তাঁত ঘরটি অনুসন্ধানে উঠে আসে। বিরিশিরি কালচারাল একাডেমির প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক বিভা সাংমার উদ্যোগ ১৯৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত করেন বিরিশিরি মহিলা সমবায় সমিতির।

বিভা সাংমা সমিতির বর্তমান পরিচালক বিনোদিনি রেমাকে সঙ্গে করে ওস্তাদ হানিফ মিঞার সার্বিক সহযোগিতায় আদিবাসী নারীদের নিয়ে তাঁত শিল্প গড়ে তুলেন। বর্তমান পরিচালক বিনোদিনি রেমার নেতৃত্বে নজরকাড়া ডিজাইন নানা রঙ্গের কাপড় বুনে চলছে  দুর্গাপুর উপজেলার আদিবাসী এলাকা বিরিশিরির গাড়ো নারী তাঁতিরা । তাদের তৈরিকৃত আদিবাসী পোষাক স্থানীয় ভাবে  চাহিদা পূরনের পাশাপাশি পর্যটকরাও কিনে নিচ্ছেন ঘুরতে এসে। স্থানীয় আদিবাসী নারীরা অন্যান্য পেশার পাশাপাশি তাঁত শিল্পের কাজে সাচ্ছন্দবোধ করেন বলে জানালেন, সমবায় তাঁতশিল্পের কর্মকর্তা বেবী সাংমা। তিনি বলেন,  কালের বিবর্তনে বর্তমানে হারিয়ে যাওয়া শিল্পটি নতুন করে প্রাণ ফিরে পেয়েছে।  তিনি বলেন, স্বাধীনতার পরে বিভা সাংমার উদ্যোগে কয়েকজন নারী উদ্যোক্তাকে সঙ্গে করে হানিফ মিঞার মাধ্যমে আদিবাসী নারীদের তাঁতের ওপর কারিগরি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেন।

হানিফ মিঞা টাঙ্গাইলের কয়েকজন তাঁতির সহযোগিতায়  এবং নিজে তাতের কাপড় বুননসহ সূতার চক্রাকাটা মাকু ব্যবহারের প্রশিক্ষণ দেন।

এবিষয় নিয়ে কথা হলে  আদিবাসী তাঁত সমবায় শিল্পের কর্মকর্তা বেবী সাংমা জানান, আদিবাসী নারীদের ঐতিহ্যগত পোশাক দকমান্দা নিজেরাই আদি থেকে তৈরি করে ব্যবহার করে আসছেন।

আধুনিকতার সঙ্গে নতুন আঙিকে নিজেদের পোশাক তৈরি করছেন বলে জানান তিনি । আদিবাসী নারীরা তাঁদের ঐতিহ্যগত পোষাক ‘‘দকমান্দা’’ তৈরিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের তৈরিকৃত পোষাক স্থানীয় চাহিদার পাশাপাশি পর্যটকদেরও আকৃষ্ট করেছে। আদিবাসীদের হাতে বোনা তাঁতের পোশাকের সঙ্গে সবাই পরিচিত। বেবী সাংমা বলেন, দুর্গাপুর উপজেলা প্রশাসনসহ জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় বিরিশিরি বহুমুখী মহিলা সমবায় সমিতি তাঁত শিল্প নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন দেখছে।

এই শিল্পটি প্রতিষ্ঠা পেলে অনেক আদিবাসী নারী আগ্রহী হবে পেশার সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে। আর্থিক সংকটের কারণে শিল্পটি দাঁড় করাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের।  তিনি বলেন, ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসকের পক্ষ্য থেকে রাষ্ট্রীয় অনুদান ১ লাখ টাকাও পেয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহায়তায় আদিবাসী বহুমুখী মহিলা সমবায় সমিতির সংগঠনের সদস্যরা হারিয়ে যাওয়া শিল্পের কাজ শুরু করেন।

কিন্ত মেশিনগুলো পুরাতন হওয়ায় এবং দ্রব্য মূল্য বাড়ার কারণে তা আর আলোর মুখ দেখতে পারেনি বেশিদিন। এখানে ২০টি তাঁত মেশিন রয়েছে এবং প্রায় সবগুলোই অকেজো। পৃষ্ঠপোষকতা পেলে নারী তাঁত শিল্পীরা নতুন উদ্যোমে কাজ শুরু করতে পারবেন। এর জন্য প্রয়োজন নতুন মেশিন ও সুঁতো কেনার পুঁজি। তবে সম্প্রতি অনুদানের টাকায় ১০ টি তাঁত মেরামত করে চালু করা হয়েছে। বর্তমানে সাতজন নারী তাঁতি কাজ করছেন। এসব মেশিনে তৈরি হচ্ছে দকশাড়ী, ওড়নাসহ গামছা তৈরি হচ্ছে। বেবী সাংমা বলেন, প্রতি পিস দকশাড়ীর দাম ২৫০ টাকা, ওড়নার দাম ২০০ টাকা , গামছা ১৫০-২০০ টাকায় বিক্রি করেন। এছাড়া গামছা ও ওড়না দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে মেয়েদের কুর্তিসহ ওয়ান পিচ কামিজ যার দাম ২০০-৩০০ টাকায় বিক্রি করেন।  তবে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আর্থিক সহযোগিতা পেলে আদিবাসী তাঁত শিল্পকে তারা অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। শুধু তাই নয় দেশের অর্থনৈতিক চাকা আদিবাসী তাঁতের পোশাকে  ঘুরিয়ে দিতে পারবেন বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, যদি সরকার থেকে বিনা সুদে ঋণ দিয়ে সহায়তা করা হয়, তৈরিকৃত পোষাক স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে দেশের বাহিরেও সরবরাহ করা যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বিরিশিরি বহুমুখী মহিলা সমবায় সমিতির পরিচালক বিনোদিনি রেমার নেতৃত্বেই চলছে তাঁত শিল্পটি বলে জানালেন বেবী সাংমা।

উইমেনআই২৪//ইউ//৩০-০৫-২০২২//১:৩২ পিএম//

‘চলতি বছরে নিপাহ ভাইরাসে ৫ জনের মৃত্যু’

পালাব না, প্রয়োজনে ফখরুলের বাসায় গিয়ে উঠব: কাদের

জাপানি দুই শিশুর অভিভাবকত্ব পেলেন মা

কাস্টমস অ্যাসোসিয়েশনের ২ দিনের কর্মবিরতি ঘোষণা

রাজশাহীতে যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

‘পাঠান’ দিয়ে ভারতে একসঙ্গে ১৭ নজির

মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামূল্যে চা সেবা দিচ্ছেন আছর আলী

বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের পড়াশোনা বন্ধে তালেবানের কাণ্ড

বাংলাদেশিদের জন্য ইতালি যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ

হতাশা থেকে সন্তানকে মুক্ত রাখতে করণীয়

সারাহর কর্নিয়া নিয়ে ভালো আছেন দুই রোগী

পাকিস্তানে বাস দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ৩৯

যেসব রোগ সারাবে সজনে ডাঁটা

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠন ফের পেছাল

শুটিং বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশের কলি

Social Islami Bank Limited