ঢাকা, বাংলাদেশ

রোববার, মাঘ ১৬ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

English

বৃত্তের বাইরে

দেশীয় চামড়াজাত পণ্যে ফৌজিয়ার সাফল্য

প্রকাশিত: ০০:০০, ২৫ এপ্রিল ২০২২; আপডেট: ১৭:২২, ১৬ জুলাই ২০২২

দেশীয় চামড়াজাত পণ্যে ফৌজিয়ার সাফল্য

উইমেনআই ডেস্ক:
ফৌজিয়া আবেদীন। জন্ম ও বেড়ে ওঠা ঢাকায়। মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরী উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজ থেকে ২০০৫ সালে মাধ্যমিক এবং ঢাকা কমার্স কলেজ থেকে ২০০৭ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। এরপর তিনি চলে যান ইতালি। ২০১৬ সালে ইতালির মিলান শহরের আর্সুটোরিয়া স্কুল থেকে ফুটওয়্যার কালেকশন ডিজাইন কোর্স এবং ২০১৭ সালে ফুটওয়্যার প্যাটার্ন মেকিং অ্যান্ড প্রোটোটাইপিং কোর্সে ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেন।

ফৌজিয়ার ইচ্ছা ছিল স্বাধীন কিছু করার। এজন্য তিনি পেশা হিসেবে বেছে নেন ব্যবসা। যেহেতু তিনি ইতালি থেকে ফুটওয়্যার কালেকশন ডিজাইন এবং ফুটওয়্যার প্যাটার্ন মেকিং অ্যান্ড প্রোটোটাইপিং কোর্স করেন, তাই তিনি চামড়াজাত পণ্য নিয়ে কাজ শুরু করেন।


ফৌজিয়া চামড়াজাত পণ্যের জগতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রবেশ করেন মূলত ২০১৫ সালে ইকো লাইফস্টাইল প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে। ইতালি থেকে ফিরে তিনি দেশীয় চামড়াজাত পণ্য বিক্রয় প্রতিষ্ঠান ইকো লাইফস্টাইল ও ইকো লেদার গুডস ইন্ডাস্ট্রির স্বত্তাধিকারী হিসেবে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। যার প্রধান বৈশিষ্ট্য নির্ধারণ করা হয় সাশ্রয়ী মূল্যে শতভাগ চামড়াজাত পণ্যের একটি বাংলদেশি ব্র্যান্ড নির্মাণ করা। যা অনবদ্য শৈলীতে বহুমাত্রিক ও অনন্য সৃজনশীলতায় স্বতন্ত্র।

ফৌজিয়া বলেন, ২০১৫ সালের ১ জুন, একটি মাত্র শো-রুম নিয়ে যাত্রায় অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে এখন ঢাকায় আমাদের ছয়টি শো-রুম সাফল্যের সঙ্গে এগিয়ে চলছে। ইকো লাইফস্টাইলের চামাড়জাত পণ্যের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো ক্রেতা ও ভোক্তাদের চাহিদা অনুযায়ী পালকের মতো হাল্কা; শীত, তাপ ও আর্দ্রতার সাথে মানানসই চামড়াজাত পণ্যের নিশ্চয়তা প্রদান করো। শুধু স্বতন্ত্র ডিজাইন, ক্ল্যাসিক কাট, গুণগত ও মানসম্মত উপকরণ, উন্নতমানের চামড়া নির্বাচন, দৃষ্টিনন্দন ও আরামদায়ক স্বকীয় আকৃতি এবং শতভাগ গুণগত মানসম্মন্ন চামড়ার ব্যবহারে উৎপাদিত চামড়াজাত পণ্য অতি দ্রুততার সাথে ভোক্তাদের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করে সুনামের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে।

বুট, অক্সফোর্ড, ডার্বি, লোফার, স্যান্ডেলের মতো বৈচিত্র্যপূর্ণ, রকমারী ও বিশাল সম্ভারের পণ্য নিয়ে ইকো লাইফস্টাইল ক্রেতাদের সাথে রয়েছে। ইকো লাইফস্টাইলের আরেকটি উল্লেখযোগ্য অবদান হলো ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর এসএমই শিল্প প্রতিষ্ঠান ইকো লেদার গুডস ইন্ডাস্ট্রির আত্মপ্রকাশ। যেখানে রয়েছে নারী-পুরুষের জন্য ব্যাকপ্যাক, হ্যান্ডব্যাগ, ছোটপার্স, ওয়ালেট, কার্ড হোল্ডার, চাবির রিংসহ নানা ধরনের চামড়াজাত পণ্য।


ইকো লাইফস্টাইল ও ইকো লেদার গুডস ইন্ডাস্ট্রির এসব পণ্যের অনলাইল ও শোরুম ভিত্তিক বিক্রয় প্রবৃদ্ধি উল্লেখযোগ্য হারে উন্নীত হয়েছে। সেইসঙ্গে এসব পণ্যের গুণগত মান, আস্থার সাথে ও বিক্রয়োত্তর আন্তরিক সেবা ক্রেতাদের মাঝে ক্রমাগত জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি করে চলেছে।

এসব পণ্যের সরবরাহ, উৎপাদন ও বিক্রির সাথে রয়েছে প্রায় ২৫০ জন দক্ষ ও আন্তরিক কর্মী। যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে আজ এগিয়ে যাচ্ছে ইকো লাইফ স্টাইল ও ইকো লেদার গুডস ইন্ডাস্ট্রি। ভোক্তাদের আন্তরিক ভালোবাসা ও আস্থাই তাদের চলার পথের অনুপ্রেণা।

উইমেনআই২৪ ডটকম//এল//  10.45 am

 

‘চলতি বছরে নিপাহ ভাইরাসে ৫ জনের মৃত্যু’

পালাব না, প্রয়োজনে ফখরুলের বাসায় গিয়ে উঠব: কাদের

জাপানি দুই শিশুর অভিভাবকত্ব পেলেন মা

কাস্টমস অ্যাসোসিয়েশনের ২ দিনের কর্মবিরতি ঘোষণা

রাজশাহীতে যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

‘পাঠান’ দিয়ে ভারতে একসঙ্গে ১৭ নজির

মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামূল্যে চা সেবা দিচ্ছেন আছর আলী

বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের পড়াশোনা বন্ধে তালেবানের কাণ্ড

বাংলাদেশিদের জন্য ইতালি যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ

হতাশা থেকে সন্তানকে মুক্ত রাখতে করণীয়

সারাহর কর্নিয়া নিয়ে ভালো আছেন দুই রোগী

পাকিস্তানে বাস দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ৩৯

যেসব রোগ সারাবে সজনে ডাঁটা

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠন ফের পেছাল

শুটিং বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশের কলি

Social Islami Bank Limited