ঢাকা, বাংলাদেশ

রোববার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

English

বৃত্তের বাইরে

নারী নির্যাতন প্রতিরোধে মহিলা পরিষদের সভা

উইমেনআই প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:১৪, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩

নারী নির্যাতন প্রতিরোধে মহিলা পরিষদের সভা

ছবি: নারী নির্যাতন প্রতিরোধে মহিলা পরিষদের ভার্চুয়াল সভায়...

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালন উপলক্ষ্যে মহিলা পরিষদের ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ ও প্রতিকার বিষয়ে অংশীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ নভেম্বর) সংঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে ভার্চুয়ালি এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (উন্নয়ন অধিশাখা) ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মাসুদা রেহানা বেগম। কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন সিনিয়র আইনজীবী ও ভারপ্রাপ্ত লিগ্যাল অ্যাডভোকেসি এন্ড লবি পরিচালক অ্যাড. দীপ্তি সিকদার।

আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উইমেন সাপোর্ট এন্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের উপ-পুলিশ কমিশনার হুমায়রা পারভীন; নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-০৭, ঢাকা এর স্পেশাল পি.পি অ্যাড. আফরোজা ফারহানা আহমেদ (অরেঞ্জ); আইপাস বাংলাদেশ’র এসআরএইচআরলিগ্যাল এ্যাসোসিয়েট সামিয়া শরীফ; কাউন্সেলিং সাইকোলজিস্ট নূজহাত-ই-; ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. দেবিকা রায় এবং দৈনিক প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার নাজনীন আখতার প্রমুখ। ভুক্তভোগীর অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন খুলনার ফুটবলার মঙ্গলী বাগচী।

স্বাগত বক্তব্যে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মাসুদা রেহানা বেগম বলেন, ‘নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে বিনিয়োগকে এখন সারাবিশ্বে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। নারী নির্যাতন প্রতিরোধে আইন থাকলেও মামলায় দীর্ঘসূত্রিতা থাকার কারনে এর সুফল পাওয়া যাচ্ছে না। আইন বাস্তবায়নে নানা চ্যালেঞ্জ দেখা যাচ্ছে। নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে কোন কোন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করা হবে সেবিষয়ে তথ্য-উপাত্তের অপ্রতুলতা রয়েছে । প্রতিরোধ, প্রতিকার ও নির্মাণে বিনিয়োগের উপর সরকারিভাবে গুরুত্ব দিতে হবে।’ তিনি পৃথিবীকে সহিংসতা মুক্ত করার ক্ষেত্রে সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষে উপস্থাপিত লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বাংলাদেশের নারী নির্যাতনের পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে শ্রেণী, বয়স, পেশা, সামাজিক অবস্থানের তারতম্য থাকলেও কেবলমাত্র লৈঙ্গিক পরিচয়ের কারণে নারীকে নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে। নারীর প্রতি পুরুষতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও দৃষ্টিভঙ্গি, ক্ষমতা কাঠামোয় নারীর অধ:স্তন অবস্থান ও নারীর ব্যক্তি অধিকারের ক্ষেত্রে বৈষম্যপূর্ণ অবস্থানকে নারী নির্যাতনের মূল কারণ হিসেবে মনে করে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। নির্যাতন প্রতিরোধের জন্য আইন থাকলেও সাক্ষী সুরক্ষা আইন না থাকায় সাক্ষীরা নির্ভয়ে, নির্বিঘ্নে আদালতে সাক্ষ্য দিতে না পারায় চলমান মামলা নিষ্পত্তিতে দীর্ঘ সূত্রিতা হচ্ছে এবং বিচার প্রার্থী মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছে। 

ভুক্তভোগীর অভিজ্ঞতা বর্ণনায় মঙ্গলী বাগচী বলেন, ‘২৯ জুলাই হঠাৎ খেলাধুলার কারণে, পোশাকের কারণে দলের খেলোয়াড়দের উপর হামলা করা হয়, এঘটনায় জনপ্রতিনিধি বিপক্ষে যাওয়ায় পুলিশ প্রথমে মামলা নিতে চাইনি,  অপরাধীরা উচ্চ আদালত থেকে জামিনে গিয়ে হুমকি দিয়েছে। তারা নিরাপত্তাহীনতা বোধ করছে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী বলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিভিন্নভাবে নারী অধিকার, নারীর ক্ষমতায়ন, সমতা ও সুরক্ষা নিয়ে কাজ করছে। ১৪ টি ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের মাধ্যমে ৬১৫৭৩ জন সহিংসতার শিকার নারীকে সহায়তা দেওয়া হয়েছে। জাতীয় কর্মপরিকল্পনার আলোকে নারীর ও শিশুর প্রতি সহিংসতাকে শূন্যের কোঠায় নিয়ে যাওয়ার জন্য গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচী সম্পর্কে উল্লেখ করে বলেন জেন্ডার বেসড ভায়োলেন্স এর ফলে নারী ট্রমাটাইজড হয়, এতে আত্মহত্যার হার বাড়ছে। 

সভাপতির বক্তব্যে ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, ‘নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিকারের কাজে কিছুটা অগ্রগতি, কিছু আইন হয়েছে। প্রতিকারের কাজকে আরো কীভাবে শক্তিশালী করা যায় সেজন্য আমাদের ভাবতে হবে, নারী নির্যাতন একটি অগ্রহণযোগ্য সংস্কৃতির বিপরীতে নারীর প্রতি সমাজে সম্মানজনক ও সমতাজনক অবস্থান তৈরির জন্য প্রচার প্রচারণার কাজ জোরদার করতে হবে, সংগঠনকেও আরো দৃঢপ্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়ে নারী আন্দোলনকে জোরদার করতে হবে।’ সবার সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের ক্ষেত্রে কোন কোন জায়গায় গুরুত্ব দিতে হবে তা নির্ধারণ করে কর্মসূচি গ্রহণের জন্য অংশীজনদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।  

সভায় কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ, সম্পাদকমন্ডলী, নাগরিক সমাজের ব্যক্তিবর্গ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ এবং সংগঠনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা সঞ্চালনা করেন কেন্দ্রীয় লিগ্যাল এইড সম্পাদক রেখা সাহা।

ইউ

এমপি নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমিন

বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্যারিসে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন

যশোরের চুড়ামনকাটিতে যুবক খুন

নোয়াখালীতে অস্ত্রসহ ৯ ডাকাত গ্রেফতার

 ভোটের রাতে গৃহবধূকে ধর্ষণ: আসামি গ্রেফতার

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন ৫০ নারী

নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে বিশ্বব্যাংকের বিশেষ তহবিল চান প্রধানমন্ত্রী

গোদাগাড়ীতে ১৬ প্রহর ব্যাপী মহানামযজ্ঞ ও লীলা কীর্তন 

মিথ্যা খবর ও গুজব ঠেকাতে নতুন আইন আসছে: আইনমন্ত্রী

নোয়াখালীতে বিনোদন কেন্দ্রের দাবিতে লিফলেট বিতরণ

ভালো অর্থনীতিক অবস্থানে বাংলাদেশ: বিশ্বব্যাংকের এমডি

পিলখানার পেছনে যারা ছিলো তাদের খুঁজে বের করা হবে: ফারুক খান

২ সন্তানকে ‘হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা’

সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন

‘অনিয়মে রোগীর মৃত্যু হলে দায়ীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স’