ঢাকা, বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

English

বৃত্তের বাইরে

গার্মেন্টস্ শ্রমিকদের শিশুদের অধিকার নিয়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত

উইমেনআই প্রতিবেদকঃ

প্রকাশিত: ২০:৩৫, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪; আপডেট: ২৩:৫৭, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

গার্মেন্টস্ শ্রমিকদের শিশুদের অধিকার নিয়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত

সিবি-সিপিএম প্রকল্পের আওতায় ‘গার্মেন্টস শ্রমিকদের শিশুদের অধিকারের জন্য সিএসও, মিডিয়া ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে সংলাপ’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়, ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীতে গার্মেন্টস্ শ্রমিকদের শিশুদের অধিকার সুরক্ষায় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  আজ ২৯ শে ফেব্রুয়ারী সকাল ১১ টায় রাজধানীর মিরপুরে কারিতাসের হল রুমে কমিউনিটি বেইজড চাইল্ড প্রোটেকশন মেকানিজম ফর দ্য চিলড্রেন অফ গার্মেন্ট ওয়ার্কার্স ইন বাংলাদেশ- প্রকল্পের আওতায় ব্রেকিং দ্য সাইলেন্স এর আয়োজনে এবং  টেরে ডেস হোমস্ নেদারল্যান্ডসের সহযোগিতায় ও গারসিয়া ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে  উক্ত সংলাপটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


অনুষ্ঠানটি গার্মেন্টস্ কর্মীদের অন্তর্ভূক্ত শিশুদের অধিকারের বিষয়ে সুরাহা ও প্রচারের বিষয়ে অংশগ্রহনের জন্য সিভিল সোস্যাইটি অর্গানাইজেশন (সিএসও) এবং মিডিয়া সহ অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের উৎসাহিত করার উদ্দশ্যে আয়োজিত হয়েছে। 

ব্রেকিং দ্য সাইলেন্স-এর প্রকল্প কর্মকর্তা আয়শা আক্তার গার্মেন্টস শ্রমিকদের শিশুদের অধিকারের জন্য সিএসও, মিডিয়া ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে সংলাপ’ শীর্ষক ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন। 

উক্ত ধারণাপত্রে তিনি উল্লেখ করেন, মূলধারায় যুক্ত হয়েছে গাজীপুর ও মিরপুরের গার্মেন্টস ও কমিউনিটির প্রাক শৈশব বিকাশ কেন্দ্রের ২২৬ জন শিশু। ২২৪ জন শিশুর জন্মনিবন্ধন তৈরিতে সহযোগিতাসহ ১১৪ জনকে প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে কিশোর ও পুরুষদের সম্পৃক্ততা কম লক্ষ্য করা গেছে। 


উক্ত সংলাপ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ,ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড ৬, ৭, ৮ এর মহিলা কাউন্সিলর শিখা চক্রবর্তী, বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফেক্চারস্ এন্ড এক্সপোর্টারস এ্যসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে সিনিয়র এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি মোঃ রাশেদুল ইসলাম, সমাজসেবা কার্যালয়ের পৌর সমাজকর্মী  প্রভাষ চন্দ্র বিশ্বাস,পল্লবী থানার নারী শিশু ও প্রতিবন্ধি বিষয়ক হেল্প ডেস্ক এর দায়িত্বপ্রাপ্ত  এএসআই তাসলিমা আক্তার,  ও রুপনগর থানার এএসআই জোহরা আক্তার প্রমূখ । 

এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, ব্রেকিং দ্য সাইলেন্স এর কর্মএলাকার শিশু, অভিভাবক, গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির প্রতিনিধি, মিডিয়া প্রতিনিধি, বিভিন্ন সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তিবর্গ এবং টেরে ডেস হোমস্ নেদারল্যান্ডস ও ব্রেকিং দ্য সাইলেন্স এর কর্মীবৃন্দ।   

অনুষ্ঠানের মূল পর্বে কর্ম এলাকার শিশুদের উপস্থাপনায় শিশু অধিকার বিশেষত গার্মেন্ট্স কর্মীদের শিশুদের অধিকার পরিস্থিতি বিষয়ে তারা তাদের পর্যবেক্ষনগুলো তুলে ধরেন। এ সময় তারা শিশু অধিকারের স্বার্থে মাতৃত্বকালীন ছুটি বর্ধিত করা, ফ্যাক্টরির ভিতরে মানসম্মত ডে- কেয়ার সার্ভিস প্রদান করা, শিশুদের মাদক সেবন ও কেনা-বেচার কাজে জড়িত না করার জন্য আইনের কঠোর প্রয়োগ বাস্তবায়ন করা, শিশু নির্যাতন, শিশু বিবাহ এবং শিশু শ্রম বন্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালানোর ক্ষেত্রে মিডিয়ার তৎপরতা, বিনামূল্যে ও স্বল্পমূল্যে লেখাপড়ার সুযোগ তৈরি করে দেয়ার ক্ষেত্রে স্কুলের ভূমিকা এবং  কর্মএলাকায় ঘরে ঘরে সচেতনতা বাড়ানো এবং শিশু অধিকারের পক্ষ্যে সংবেদনশীলতা বাড়ানোর জন্য কমিউনিটি ও অন্যান্য সেবা প্রদানকারীদেরকে উদ্যোগ গ্রহন করা, শিশুদেরকে ঝুঁকিপূর্ন কাজে যোগদানের ঝুঁকি এড়াতে তাদের বয়স উপযোগি কারিগরি দক্ষতাবৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষন প্রদান করার বিষয়ে মতামত প্রদান করে। 

শিশুদের উক্ত উপস্থাপনার আলোকে অংশগ্রহনকারীগন তাদের মতামত প্রদান করেন। 

বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফেক্চারস্ এন্ড এক্্রপোর্টারস এ্যসোসিয়েশন (বিজিএমইএ) এর সিনিয়র এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি মোঃ রাশেদুল ইসলাম বলেন, বিজিএমইএ এর যে সকল ফ্যাক্টরি গুলো বড় সরিসরে কাজ করে সেখানে ডে-কেয়ার সার্ভিসের ব্যবস্থা রয়েছে এবং এটি বাধ্যতামূলক। তবে ছোট ফ্যাক্টরির ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থাটি আপাতত নেই। 

সমাজসেবা কার্যালয়ের পৌর সমাজকর্মী জনাব প্রভাষ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, সমাজসেবা শিশুদের জন্য অনেক ধরনের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। শিশু অধিকার এবং সুরক্ষার বাস্তবায়নে সকল ধরনের শিশুদের পরিস্থিতি নিয়ে আমাদেরকে চিন্তা করতে হবে, সংবেদনশীল হতে হবে এবং সবাই মিলে যার যার জায়গা থেকে ভূমিকা পালন করতে হবে। 

ওয়ার্ড নং ৬, ৭, ৮ এর মহিলা কাউন্সিলর শিখা চক্রবর্তী শিশু অধিকারকে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। তিনি শিশু অধিকার লঙ্ঘিত হলে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট থানার দৃষ্টি আকর্ষন করেন। গার্মেন্ট শ্রমিকদের সাথে ভালো ব্যবহার করার জন্য যথাযথ মনিটরিং ব্যবস্থা রাখার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন এবং শিশুদের লেখাপড়ার দিকে অধিক গুরুত্ব প্রদানের জন্য পরামর্শ প্রদান করেন এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেন শিশুরা কোন ধরনের সহিংসতার শিকার না হয় সে বিষয়ে মতামত দেন। 


পরিশেষে টেরে ডেস হোমস্ নেদারল্যান্ডস এর প্রকল্প সমন্বয়কারী দেবব্রত কুমার অধিকারী সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, আমাদের বিভিন্ন সেক্টর থেকে সকলকে নিয়ে এই অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য হচ্ছে আমরা সবাই যাতে শিশু অধিকারের প্রতি অনেক বেশি সংবেদনশীল থাকতে পারি এবং আমাদের পরিবারের শিশু, আমাদের সমাজের শিশু সবার প্রতি আমরা আমাদের যথাযথ জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে পারি।

//এল//

সয়াবিন তেলের নতুন দাম নির্ধারণ

ঠাকুরগাঁও জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা

খাদ্য নিরাপত্তা বাড়ানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

৭ বিভাগে বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস

শুক্রবার থেকে ভারতের লোকসভা নির্বাচন শুরু

পরীক্ষার রুটিন পরিবর্তনের দাবিতে মানববন্ধন

বনানীতে চালু হলো চীনা ভিসা সেন্টার

গুলশান বারের সামনে মদ্যপ তরুণীদের হাতাহাতি-চুলাচুলি

ফের এক হচ্ছেন তাহসান-মিথিলা

নোয়াখালীতে মাদরাসাছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

গরম লাগলেই ঠান্ডা পানি খান? জানুন কী ভুল করছেন

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কেউ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি: প্রধানমন্ত্রী

সেই রাতে ৮৭ হাজার টাকার মদ পান করেন পরীমণি

ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নিল ইইউ

প্রধানমন্ত্রীত্ব নিয়ে রেষারেষি:দেশপ্রেমে তা ভুলে যান চারনেতা!