ঢাকা, বাংলাদেশ

মঙ্গলবার, আষাঢ় ৩ ১৪৩১, ১৮ জুন ২০২৪

English

বৃত্তের বাইরে

হেনা দাস এর লেখা প্রবন্ধের উপর আলোচনা সভা

উইমেনআই প্রতিবেদকঃ

প্রকাশিত: ২১:০৭, ১৯ মে ২০২৪; আপডেট: ২১:৩৭, ১৯ মে ২০২৪

হেনা দাস এর লেখা প্রবন্ধের উপর আলোচনা সভা

সংগৃহীত ছবি

হেনা দাসের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বছরব্যাপী গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি আয়োজনের  ধারাবাহিকতায় তাঁর  লেখা ‘চার পুরুষের কহিনী’ প্রবন্ধের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ১৯ মে ৩ টায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের উদ্যোগে আনোয়ারা বেগম ও মুনিরা খান মিলনায়তনে সংগঠনের প্রয়াত সভাপতির প্রবন্ধের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম। 
স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রশিক্ষণ, গবেষণা ও পাঠাগার সম্পাদক রীনা আহমেদ।
আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী মাহমুদ খালিদ, শান্তি ও সংঘর্ষ  শিক্ষার্থী সামিরা রহমান, উইমেন এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী ফারাব আল রহমান ভূইয়াএবং প্রশিক্ষণ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের গবেষণা ও পাঠাগার উপপরিষদ সদস্য হালিমা তুস সাদিয়া।

সভায় উপস্থিত  বক্তারা বলেন, একজন প্রগতিশীল,  কুসংস্কারমুক্ত, অসাম্প্রদায়িক, সহনশীল এবং নবজাগরণে বিশ্বাসী ছিলেন হেনা দাস। হেনা দাসের সময়ে মেয়েদের জন্য স্বাধীন ও স্বতন্ত্র পরিবেশ কমই ছিলো। এমন পরিবেশে তিনি কমিউনিজমের আদর্শকে ধারণ করে এই উপমহাদেশের নারীদের জীবনের পরিবর্তনের জন্য কাজ করেছেন।

 তিনি স্বার্থহীনভাবে পিছিয়ে পড়া বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর সাথে মিশে তাদের জীবনধারা বোঝার চেষ্টা করেছেন,তাদের জীবনমানের উন্নতির জন্য কাজ করেছেন। তাঁর লেখায় তৎকালীন সময়ের রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক দিক সহ সকল দিক উপস্থপিত হয়েছে সুস্পষ্টভাবে। জাতীয়তাবাদকে ধারণ করে  ব্যক্তিজীবনের চেয়ে সামাজিক জীবনকে গুরুত্ব দিয়েছেন তিনি। সকল নারীদের অধিকার আদায়ের জন্য, সমতা প্রতিষ্ঠার জন্য  নারীর আন্দোলনকে একটি  নির্দিষ্ট প্ল্যাটফর্মে  নিয়ে আসা, নিজের প্রজন্মের যারা সেরা তাদের থেকে অভিজ্ঞতা নিয়ে নিজের দৃষ্টিভঙ্গিকে উন্নত করার উপর জোরালো আহ্বান পাওয়া যায় তার লেখায়। বইটিতে ভারতীয় উপমহাদেশের ঊনবিংশ সময়ের পারিবারিক , সামাজিক রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের  চিত্র হেনা দাস উপস্থাপন করেছেন অত্যন্ত প্রাঞ্জলভাবে। সম্প্রীতির যে চিত্র বইটিতে উপস্থাপিত হয়েছে তা পর্যালোচনা করে মনে হয় বর্তমান সময়ে আমাদের সমাজ যেন তিনশ বছর পিছিয়ে গেছে সম্প্রীতির দিক দিয়ে।  এমন সংকটের সময় একটি সামব্যাদী সমাজ গঠনের জন্য হেনা দাসের চেতনা, কর্মমূখী জীবন আজকের তরুণদের জন্য অনুপ্রেরণা যোগাবে বলে তারা মত দেন।

সভাপতির বক্তব্যে ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, হেনা দাসের জন্মের একশত বছরে এসে যা কিছু উপলব্ধ তা  বর্তান সময়ের সাথে কতটা সঙ্গতিপূর্ণ আমাদের সেটি পর্যালোচনা করতে হবে। তারা যেসময়টাকে ধারণ করেছেন তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, একইসাথে বর্তমান সময়ে হেনাদাসের জীবনী তরুণ প্রজন্মের জন্য কি শিক্ষা দিবে সেটিও ভাবতে হবে।  সমতার চূড়ান্ত পথ হচ্ছে সাম্যবাদ, যা অর্জনে আমাদের এখনো বহুপথ হাঁটতে হবে। প্রাপ্যতাকে সামনে রেখে মানবতাকে রক্ষা করতে নিজেকে তৈরি করতে হবে নিজের পারিপার্শি¦ক পরিস্থিতি থেকে। হেনা দাসের আন্দোলন ছিলো সকল বৈষম্য থেকে মানুষকে মুক্ত করা, এ আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে তরুণদের ভাবনা জেনে তাদের ভাবনাকে সঠিক দিকে পরিচালিত করার উপর গুরুত্ব দেন তিনি।

স্বাগত বক্তব্যে রীনা আহমেদ বলেন, একটি স্বেচ্ছাসেবী গণনারী সংগঠন হিসেবে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ৫৪ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে। হেনা দাসের জন্ম শতবার্ষিকীতে সংগঠন বছরব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তিনি গণমানুষের জন্য সবসময় নিজের জীবন কে বাজি রেখে, সুখ স্বাচ্ছন্দ্য বির্সজন দিয়ে  অত্যন্ত ধীর স্থিরভাবে বিচক্ষণতার সাথে কাজ করেছেন। তরুণ প্রজন্ম  হেনা দাসের লেখা চার পুরুষের কাহিনী পড়ে কি ভাবছেন তা আলোচনার জন্য আজকের সভার আয়োজন করা হয়েছে।

উক্ত আলোচনা সভায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দ, সম্পাদকমন্ডলী, সাংবাদিক এবং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনা করেন প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কর্মকর্তা আফরোজা আরমান।

//এল//

উত্তরে শতভাগ, দক্ষিণে ৮৫ শতাংশ বর্জ্য অপসারণ

গণভবনে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন প্রধানমন্ত্রী

বৃষ্টিতে ডুবলো সিলেট, ঈদ আনন্দ ম্লান

রাত ৮টার মধ্যেই পরিষ্কার হবে ডিএনসিসির বর্জ্য: আতিকুল ইসলাম

ঈদের নামাজে দেশ ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা

হজের দিনে আরাফাতের ময়দানে নারীর সন্তান প্রসব

জাতীয় ঈদগাহে নামাজ পড়লেন রাষ্ট্রপতি

ঈদের নামাজ শেষে ফিলিস্তিনের জন্য বিশেষ মোনাজাত

মহল্লায় মহল্লায় চলছে পশু কোরবানি

ইতিহাস গড়ে সুপার এইটে বাংলাদেশ

নেপালের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত

জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত

পবিত্র ঈদুল আজহা আজ

ঈদের আগে রিজার্ভ বেড়ে ১৯ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে