ঢাকা, বাংলাদেশ

বুধবার, জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪

English

রাজনীতি

১৫ দিনের লাগাতার কর্মসূচি দিল বিএনপি

সুকুমার সরকার

প্রকাশিত: ১৫:৩২, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩; আপডেট: ১৯:২২, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

১৫ দিনের লাগাতার কর্মসূচি দিল বিএনপি

১৫ দিনের লাগাতার কর্মসূচি দিল বিএনপি------ ছবি: সংগৃহীত

২৪ সালের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে শাসকদল ও বিরোধীদলের কাজিয়া তুঙ্গে। শেখ হাসিনা সরকারের বক্তব্য স্পষ্ট- নির্বাচিত সরকারের অধীনেই স্বাধীন নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। কিন্তু দেশের প্রাক্তন শাসকদল ও বর্তমানে দেশের প্রধান বিরোধীদল বিএনপির দাবি- নির্বাচনের আগে সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। বাংলাদেশের নির্বাচনে গণতন্ত্রের পথে বাঁধা দাঁড়ায় এমন কোন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, সংস্থার কেউ জড়িত থাকলে তাদের ভিসা নিষেধাজ্ঞায় তালিকাভুক্ত করা হবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এমন ঘোষণায় বিএনপি চাঙ্গা বোধ করছে। কিন্তু সরকারিদল আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, এজন্য বিএনপির নেতা-কর্মীরাও তালিকাভুক্ত হতে পারেন। অতএব বিএনপির এতে খুশি হওয়ার কিছু নেই। অবশ্য তদারকি ব্যবস্থা না থাকায় বিএনপি ২০১৪ ও ২০১৯-এর নির্বাচন বয়কট করেছে। এবারও এই এক দফা দাবি আদায়ে  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) যুগপৎ আন্দোলনের অংশ হিসেবে ১৫ দিনের টানা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এ কর্মসূচি আগামীকাল ১৯ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে চলবে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত। মাঝে ২০ সেপ্টেম্বর, ২৪ সেপ্টেম্বর ও ২৮ সেপ্টেম্বর কোনো কর্মসূচি দেয়নি দলটি। কর্মসূচির মধ্যে রোড মার্চ এবং সমাবেশ রয়েছে।এর মধ্যে রাজধানী ঢাকার প্রবেশমুখে আটটি সমাবেশ করবে তারা। 

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দলের চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এটি সরকার পতনের এক দফার আন্দোলনের বিএনপির সপ্তম কর্মসূচি ঘোষণা। ১৯ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) ঢাকা জেলার জিনজিরা/কেরানীগঞ্জ এবং গাজীপুরের টঙ্গীতে সমাবেশ হবে। ২১ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) ভৈরব-ব্রাহ্মণবাড়িয়া-হবিগঞ্জ-মৌলভীবাজার-সিলেটে রোড মার্চ। পরদিন (২২ সেপ্টেম্বর) বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আশু রোগমুক্তি কামনায় বাদ জুমা সারা দেশের জেলা, মহানগর, উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা কখনও কিছুটা উন্নতি, আবার কখনও খারাপ হচ্ছে। চিকিৎসকদের পরামর্শে বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ অবস্থায় ফের স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় তাকে কেবিন থেকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) নেয়া হয়েছে। ১৭ সেপ্টেম্বর (রবিবার) দিবাগত রাত ২টার দিকে তাকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। এর আগে রবিবার রাতে খালেদা জিয়ার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা পর্যালোচনা করতে দেশী-বিদেশি চিকিৎসকদের সমন্বয়ে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের বৈঠকে তাকে সিসিইউতে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়া। তার লিভার, হৃদযন্ত্র ও কিডনির সমস্যা জটিল অবস্থায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বিএনপির ১৫দিন ধরে টানা আন্দোলনটি সারাদেশে রোড মার্চ, সমাবেশ, জনসমাবেশ, মহিলা সমাবেশ, কৃষক সমাবেশ, আইনজীবীদের কর্মসূচি চালিয়ে যাবে। দ্বিতীয় ধাপে দলটি বনধ, অবরোধের মতো কর্মসূচির চিন্তা করছে দলটির নীতিনির্ধারকরা। যা হবে সরকার পতনের দাবিতে চূড়ান্ত আন্দোলনের শেষ ধাপের কর্মসূচি। এর মাধ্যমেই আন্দোলনের ফসল ঘরে তুলতে চায় বিএনপি। সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে সব সাংগঠনিক জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বার্তা দেওয়া হয়েছে। এদিকে বিএনপির প্রতি সংহতি জানিয়ে সরকার পতনের একদফা দাবিতে ধারাবাহিক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে গণতন্ত্র মঞ্চ। ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানী ঢাকায় রোড মার্চ, সমাবেশ ও পদযাত্রা করবেন জোটের নেতাকর্মীরা। একই দাবিতে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত সারাদেশে সেমিনার এবং আলোচনাসভাও করবে গণতন্ত্র মঞ্চ। 

সোমবার দুপুরে রাজধানী ঢাকার পুরানা পল্টনে সংবাদ সম্মেলনে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন মঞ্চের শীর্ষ নেতা ও ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু।

বিএনপি নেতারা জানান, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের তফশিল ঘোষণার আগেই দাবি আদায় করতে চান তারা। এজন্য দুই ধাপে কর্মসূচি সাজানো হচ্ছে। সরকার কঠোর হলে কর্মসূচিও কঠোর হবে। নেতারা মনে করেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং মানবাধিকারসহ নানা ইস্যুতে আন্তর্জাতিকভাবেও সরকারের ওপর চাপ আরও বাড়ছে। তাই একদফা দাবি আদায়ে বিএনপিরও পেছনে ফেরার আর কোনো সুযোগ নেই। 

এদিকে বিএনপির টানা আন্দোলনের মধ্যে দুঃসংবাদ এসেছে যে, প্রাক্তন নেতা প্রয়াত নাজমুল হুদা প্রতিষ্ঠিত ‘তৃণমূল বিএনপি’তে যোগ দিচ্ছেন বিএনপির  দুই নেতা শমসের মবিন চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার। রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচিত এই দুই নেতা দলটির শীর্ষ দুই পদে আসছেন। তাঁরা ছাড়াও বিএনপির সাবেক, বহিষ্কৃত ও নিষ্ক্রিয় একঝাঁক নেতাও আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিতে পারেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। 
সূত্র জানায়, ১৯ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) তৃণমূল বিএনপির প্রথম কাউন্সিল। ঢাকায় এই কাউন্সিল উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। তৃণমূল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অন্তরা হুদা সাংবাদিকদের বলেন, ‘দলের গঠনতন্ত্রে চেয়ারম্যানের পাশাপাশি কো-চেয়ারম্যানের পদও থাকছে। শমসের মবিন চৌধুরী ও তৈমূর আলম খন্দকার দলে যোগ দিচ্ছেন। তারা ভালো পদে থাকবেন বলে আশা করি।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপি ভাঙার কোনো ইচ্ছা আমাদের নেই। কাউন্সিলে আরো চমক আছে। আরো অনেকে যোগ দেবেন। আমরা নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নিইনি। তবে নির্বাচনের সব প্রস্তুতি দলের রয়েছে।’

অন্তরা হুদা আরো বলেন, ‘নির্বাচনে অংশ নিলেই আমরা সরকারের দালাল হয়ে গেছি, এটা তো ঠিক না। তবে আমরা কোনো জোটে যাব কী না, সেটি এখনো ঠিক করিনি।’ বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, ‘বিএনপি আমাকে গত দেড় বছর ধরে বহিষ্কার করে রেখেছে।’

‘আমি তো আর দল ছাড়িনি। একজন বহিষ্কৃত লোক কত বছর একটা পতাকা টেনে নিতে পারে? এখন আমার পরিচয় কী? মারা গেলে আমার পরিচয় কী হবে? কোন ব্যানারে আমি বক্তব্য দেব? আমার জন্ম তো রাজপথে। যেহেতু বিএনপি আমাকে বহিষ্কার করেছে, সেহেতু আমাকে এখন তৃণমূল বিএনপিকে আঁকড়ে ধরে থাকতে হবে। আমি সেখানেই যাচ্ছি। আশা করি শীর্ষ পদেই থাকব।’

//জ//ইউ

অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন সাবিনা-রিতুরা

মাঝরাতে জবি মসজিদে ঘুমন্ত ছাত্রী!

এখনও বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন সোয়া কোটির বেশি গ্রাহক

ফেসবুকে এমপি আনারের মেয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস

অনলাইন যৌন হেনস্তার শিকার ৩০ কোটিরও বেশি শিশু

ইন্দোনেশিয়ায় স্বর্ণপদক জিতলেন বাংলাদেশের নারীরা

ভাইরাল ছবিটি নিয়ে যা জানা গেল

ডিএসইসি এর সাথে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় 

এমপি আনারের দেহাংশ উদ্ধারের দাবি

স্ত্রী-সন্তানসহ বেনজীরকে দুদকে তলব

ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিলো ইউরোপের তিন দেশ

হানিট্রাপে হত্যার শিকার আনার, শিলাস্তির গ্রামের বাড়ি শূনশান

ধানের দাম কমায় সরবরাহ ঘাটতি আশুগঞ্জ মোকামে

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে মিলিয়নিয়ার হলেন হালিমা আক্তার

আজিজ, বেনজীরে অস্বস্তিতে নেই সরকার: কাদের