Women Eye
প্রিন্টঃ ২৯ জুন ২০২২, ০১:০৭ পি. এম.
 

জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা, মার্কেটে উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিতঃ ২৩ এপ্রিল ২০২২
জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা, মার্কেটে উপচেপড়া ভিড়

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: করোনার কারণে গত দুইবছর ঈদের বাজার মোটেও জমেনি। এবার অবশ্য ভিন্ন চিত্র। ক্রেতাসাধারণের উপস্থিতিতে রাজধানীর শপিংমল ও মার্কেটগুলো মুখরিত হয়ে উঠছে। বেচাকেনা জমে উঠায় ব্যস্ত সময় পার করছেন বিক্রয়কর্মীরা। রাজধানীর বিভিন্ন শপিংমল ও মার্কেট ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্ক, এলিফ্যান্ট রোড, নিউমার্কেট, আড়ং, চাঁদনী চক, আজিজ সুপার মার্কেট, বনানী, গুলশান, মৌচাক মার্কেট, টুইন টাওয়ার, কর্ণফুলি গার্ডেন সিটি, রাজধানী সুপার মার্কেট, বঙ্গবাজার, গুলিস্তান মার্কেটগুলোতে বড়দের পাশাপাশি শিশুদের পোশাক সাজিয়ে রেখেছেন দোকানীরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শিশুদের জন্য ইন্ডিয়ান, চায়না পার্টি ফ্রক ৮৫০ থেকে ৫ হাজার টাকা, চায়নিজ টপস ও গ্রাউন টপস ৭০০ থেকে আড়াই হাজার টাকা, বিদেশি থ্রিপিস ২ হাজার থেকে সাড়ে ৫ হাজার টাকা। এছাড়া বিভিন্ন দামে টু-পিস, ওয়ান-পিস, লেহেঙ্গা, সাবারা, শার্ট-প্যান্ট, বাসপা, টি-শার্ট, গরমে শিশুদের প্রশান্তির কথা ভেবে গেঞ্জি কাপড়ের টপ, টি-শার্ট, প্যান্ট এনেছে বিভিন্ন ব্র্যান্ড। মেয়ে শিশুদের জন্য সুতির টু-পিস, থ্রি-পিস, ফ্রকের বড় সংগ্রহ এনেছে ফ্যাশন হাউসগুলো।

বসুন্ধরা শপিং সিটিতে শপিং করতে আসা আদিয়া জাহান বলেন, সন্তান ও আত্মীয়-স্বজনদের জন্য কাপড় কিনতে এসেছি। কিন্তু পোশাকের দাম অনেক বেশি। ঘুরে দেখেছি পছন্দ ও দাম ঠিক হলে কিনবো।

রাজধানীর গ্রেটওয়াল মার্কেটের ক্রেতা জাহিদ মেলকার বলেন, কাপড়ের দাম অনেক বেশি। গত কয়েক বছরের তুলনায় দ্বিগুণ দাম চাচ্ছে দোকানীরা।

দোকানদার আব্দুর রহিম বলেন, প্রতি বছরের মতো এবারও শিশুদের কাপড় বেশি বিক্রি হচ্ছে। আর গরমকে সামনে রেখে এবার কাপড়গুলোকে গরমে পরার উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছে। দাম একটু বেশি হলেও কাপড়ের গুণগত মান ভালো ও আরামদায়ক।

জহির রায়হান নামে আরেক বিক্রেতা বলেন, কাস্টমারের চাহিদা মতো বিভিন্ন পোশাক সাজিয়ে রেখেছি। বিভিন্ন দামের বিভিন্ন সাইজের পোশাক আনা হয়েছে। এবার বেচা বিক্রি মোটামুটি, তবে সামনে আরো বাড়বে বলে আশা করি।

উইমেনআই২৪ডটকম/জে//২৩-০৪-২০২২//১০.৪৭ পি এম