ঢাকা, বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

English

মতামত

প্রবাসীদের কষ্ট আর বুকফাটা আর্তনাদ নিয়ে বেঁচে থাকা

আলমগীর দারাইন:

প্রকাশিত: ১০:৪০, ১৮ মার্চ ২০২৪

প্রবাসীদের কষ্ট আর বুকফাটা আর্তনাদ নিয়ে বেঁচে থাকা

ফাইল ছবি

আপনি প্রবাসী, উন্নত দেশে স্থায়ী ভাবে বসবাস করছেন, বাবা-মা মৃত। দেশ এখন আর আপনার নেই। কথাটা আপাত দৃষ্টিতে অবান্তর মনে হলেও সত্যি। প্রবাসী অনেকের মুুখে একই অভিযোগ শোনা যায়, তাদের পৌত্রিক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ। দেশে বসবাস করা ভাই-বোন তাদের সম্পত্তি নিয়ে নানা তাল-বাহানা করছে, সম্পত্তি বিক্রি করতে গেলে নানা রকন বাধা, প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। কখনো  সম্পত্তি বন্টনে প্রবাসী ভাই- বোনকে বাদ দিয়ে সম্পত্তি বন্টন করা হচ্ছে। 

 এদের  অনেকেই শিক্ষিত, উচ্চ শিক্ষিত, সম্ভ্রান্ত  পরিবাররের সন্তান। কেন এই নৈতিক অবক্ষয়, অধপতন? এক কথায় লোভ ও সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধি এর কারণ। 

ভাই বোনদের আসল চেহারা দেখবেন যখন পৌত্রিক সম্পত্তি  ভাগ-বাটোয়ারা ও বিক্রি করতে যাবেন। মন থেকে ঝেড়ে ফেলুন, ভুলে যান দেশের কথা, দেশের জন্য মায়া মমতা, ভালোবাসা। দেশে এখনো অনেক মানুষ ভাবে উন্নত দেশ মানে, গাছে ডলার ঝোলে, নাড়া দিলেই পরে। ডলার বাতাসে উড়ে। 

প্রবাসে তারা অনেক ভালো ও সুখে আছে। তাদের কোন টাকার প্রয়োজন নেই। পৌত্রিক সম্পত্তিতে প্রতিটি সন্তানের সমান হক সেটা তারা বেমালুম ভুলে যায়। কখনো কখনো পৌত্রক মূল ভিটাবাড়ী বোনকে বাদ দিয়ে বন্টন করা হয়। বড় ভাইগন তাদের সুবিধা মতো বন্টন করেন। অন্যান্য শরিকদের মতামত  নেওয়া প্রয়োজন মনে করেন না।


যদি আপনার একধিক ভাই-বোন থাকে পিতা- মাতা পৌত্রিক সম্পদ রেখে যান। বাবা-মা মৃত্যুর পূর্বে যদি ভাগ-বাটোয়ারা, দানপত্র দলিল না করে যান, সেই ক্ষেত্রে আপনার  দেশের আপন ভাই বোনই আপনার শত্রু হতে বেশি সময় লাগবে না। 

যারা দীর্ঘদিন প্রবাসে বসবাস করেন পিতা মাতার মৃত্যু পর,  সাথে সাথে আদালত থেকে সকল শরিকের ওয়ারিশনামা  সার্টিফিকেট বের করবেন। একটা বণ্টন নামা তৈরী করতে হবে। নিজেরা না করতে পারলে একজন আইনজীবীর সহায়তা নিন।

বন্টননামাটি রেজিস্ট্রি করবেন এবং তার সত্যায়িত কপি নিয়ে আপনার অংশ নামজারি করবেন। সম্পত্তি বিক্রির ক্ষেত্রে বনটননামার কপি, নামজারি ও পর্চার কপি থাকা আবশ্যিক, জাতীয় পরিচয় পত্রের (এন আই ডি) সাথে বাংলাদেশী পাসপোর্ট থাকলে ভালো। সম্ভবতঃ নতুন আইনে অন্যান্য শরিককে বিক্রির পূর্বে নোটিশ দেওয়া বিধান সংযুক্ত করা হয়েছে ।

প্রথমে ভুল করবেন যদি আপনি দয়া বসত কোন ভাই বোনের  ভোগ দখলের সুযোগ করে দেন। বন্টননামা, রেজিস্ট্রি ও নামজারি  না করনে। সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধির সাথে সাথে সম্পত্তির উপর ভোগ দখলকৃত ভাই বোনের নজর পরবে। তখন নতুন বন্টন নামার প্রশ্ন তুলবে, নানা ভাবে বাধার সম্মুখিন হবেন। তারা তখন বলবে  বাবা মা এই সম্পত্তি তাদেকে মৌখিক ভাবে দান করে গিয়েছিলেন ইত্যাদি, নতুন নতুন তত্ত্ব বের হতে থাকবে। বাজার মূল্য থেকে কম দামে আপনাকে তাদের কাছে বিক্রি কারতে বাধ্য করবে। যদি আপনি সঠিক দামে অন্য কোথায় বিক্রি করেন। সাথে সাথে আপনি পৃথিবীর এক নম্বর   শত্রুতে রুপান্তরিত হবেন। ভাই বোনদের কাছে আপনি অতি খারাপ মানুষ বলে বিবেচিত হবেন। সমাজে ও আত্মীয় স্বজনের নিকট আপনার নামে মিথ্যে নিন্দা ছড়াতে থাকবে। যেহেতু আপনি প্রবাস থেকে দীর্ঘদিন দেশে অবস্থান করেন, পৌত্রিক সম্পত্তি সংক্রান্ত দেশীয় আইনে দীর্ঘমেয়াদী জটিলতা নিষ্পতি করতে পারবেন না। সেই সুযোগটা আপনার দেশের ভাই-বোন নেবে।


অতএব প্রবাসী ভাই বোনেরা সাবধান।

লেখক: আলমগীর দারাইন 
 ক্যালগেরি, কানাডা

//এল//

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম কমলো

ফুলবাড়ীতে দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী

সয়াবিন তেলের নতুন দাম নির্ধারণ

ঠাকুরগাঁও জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা

খাদ্য নিরাপত্তা বাড়ানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

৭ বিভাগে বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস

শুক্রবার থেকে ভারতের লোকসভা নির্বাচন শুরু

পরীক্ষার রুটিন পরিবর্তনের দাবিতে মানববন্ধন

বনানীতে চালু হলো চীনা ভিসা সেন্টার

গুলশান বারের সামনে মদ্যপ তরুণীদের হাতাহাতি-চুলাচুলি

ফের এক হচ্ছেন তাহসান-মিথিলা

নোয়াখালীতে মাদরাসাছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

গরম লাগলেই ঠান্ডা পানি খান? জানুন কী ভুল করছেন

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কেউ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি: প্রধানমন্ত্রী

সেই রাতে ৮৭ হাজার টাকার মদ পান করেন পরীমণি