ঢাকা, বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার, শ্রাবণ ৯ ১৪৩১, ২৫ জুলাই ২০২৪

English

জাতীয়

কারো কাছে হাত পেতে চলবো না: প্রধানমন্ত্রী

উইমেনআই প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:১০, ১৫ জুন ২০২৪

কারো কাছে হাত পেতে চলবো না: প্রধানমন্ত্রী

ছবি সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নিজের ফসল আমরা নিজেরা উৎপাদন করবো। কারো কাছে হাত পেতে চলবো না। পরিবেশ রক্ষার জন্য আন্দোলন দেশে আওয়ামী লীগই প্রথম শুরু করে।  

শনিবার (১৫ জুন) সকালে গণভবনে কৃষক লীগের উদ্যোগে তিন মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকারের প্রশ্নে বিএনপির আন্দোলনের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, বিএনপির মুখে গণতন্ত্র ও ভোটাধিকারের কথা শুনলে হাসি পায়। অথচ এক সময় এরাই জিয়ার অবৈধ ক্ষমতাকে বৈধ করতে নির্বাচন নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছিলো। বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে ১৭ জন কৃষক-শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে খালেদা জিয়া। কানসাটে বিদ্যুতের দাবিতে আন্দোলনরত কৃষকদের গুলি করে হত্যা করেছিলো বিএনপি।

শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের ভোট চুরি করে ক্ষমতায় থাকতে পারে না। ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন তার প্রমাণ। জনগণের আন্দোলনের মুখে খালেদা জিয়াকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নিতে হয়। ১৯৯৬ সালে খালেদা জিয়ার পদত্যাগ সেটাই প্রমাণ করে।

তিনি বলেন, বিএনপি শুধু ক্ষমতায় থাকাকালেই নয়, বিরোধী দলে থাকাকালেও আন্দোলনের নামে গাছ কেটেছে। ২০১৩ সালে আন্দোলনের নামে গাছ কেটে ফেলে বিএনপি। বৃক্ষ নিধন করাই বিএনপির চরিত্র। আওয়ামী লীগই দেশে প্রথম বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে। আওয়ামী লীগ ১৯৮৪ সাল থেকে গাছ লাগানোর কর্মসূচি হাতে নেয়। পরিবেশ রক্ষার জন্য আন্দোলন আওয়ামী লীগ শুরু করে।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তিন ফসলি জমি নষ্ট করে কোনো শিল্পায়ন করা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়ে সবাইকে বৃক্ষরোপণ অভিযানে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, কৃষি জমি রক্ষার জন্য বিশেষ শিল্পাঞ্চল করা হয়েছে। আমরা নিজের ফসল নিজেরা উৎপাদন করবো। কারো কাছে হাত পেতে চলবো না। যার তিক্ত অভিজ্ঞতা আছে ৭৪ সালে। কেনা চাল আসতে দেয়া হয় নি। কৃত্রিম খাদ্য সংকট তৈরি করে জনগণের থেকে বঙ্গবন্ধুকে বিচ্ছিন্ন করা হয়। সেই চেষ্টা এখনো দেশে রয়েছে। 

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপির চিন্তা দৈন্য। বিদেশি সহায়তা আসবে না বলে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়া এই দলটি ভালোভাবে নেয়নি। খালেদা জিয়া বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) বন্ধ করে দিয়েছিলো। কারণ বিদেশ থেকে বীজ আমদানি করেছিলো খালেদা জিয়া। তার দলের নেতারা বীজ ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলো। বিএনপি টিসিবিও বন্ধ করে দিয়েছিলো। গুটি কয়েক মানুষের আর্থিক সুবিধা দিতে গিয়ে সাধারণ মানুষ যেসব জায়গা থেকে সুবিধা পাবে সেগুলো বন্ধ করে দেয় বিএনপি। বিএনপির কাজই তেলে মাথায় তেল দেওয়া।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণকে যে যে ওয়াদা দিয়েছিলো তার সবই পূরণ করেছে। ২০৪১ সার পর্যন্ত প্রেক্ষিত পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ব-দ্বীপ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নেদারল্যান্ডসের সাথে চুক্তি করা হয়েছে।

ইউ

ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী

ফুটেজ দেখে শনাক্ত ও গ্রেপ্তার করা হচ্ছে: ডিবিপ্রধান

 ‘বিএনপি-জামায়াত চক্র পাকিস্তান কমিউনিটির সহায়তা নিয়েছে’

ম্যানেজারের সঙ্গে প্রেম, ঘর ভাঙছে যীশুর

নরসিংদীতে ধীরে ধীরে স্বস্তি ফিরছে জনজীবনে

আপাতত বন্ধ এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, ৫০ কোটি টাকা ক্ষতি

রাজধানীতে ১৩৩ মামলায় গ্রেপ্তার ১১১৭

তিন সংস্থার ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা ক্ষতি

ফেসবুক চালু নিয়ে যা বললেন পলক

কোটা আন্দোলন: নাশকতাকারীদের তথ্য দিলে ‘পুরস্কার’

বাজারে সবজির দাম বেড়ে দ্বিগুণ

নরসিংদীতে আরো ১৫৬ বন্দির আত্মসমর্পণ

ঋণ-ক্রেডিট কার্ডের কিস্তির বিলম্ব ফি লাগবে না

হাসপাতালে ৬৯ পুলিশ, আইসিইউতে তিনজন

তালিকা হচ্ছে গা-ঢাকা দেয়া আওয়ামী লীগ নেতা-এমপিদের