সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯
২৭ জুন ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

যেসব লক্ষণ দেখে বুঝবেন উদ্বেগে আছে সন্তান

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: পড়াশোনার চাপ এবং তীব্র প্রতিযোগিতার টানাপোড়েনে অনেক সময়ই শিশুরা মানসিক চাপের মধ্যে থাকে। হতাশা ও উদ্বেগ গ্রাস করে তাদের। ইদানীং পড়াশোনা, খেলাধুলা— সব ক্ষেত্রেই ইঁদুর দৌড় শুরু হয়ে যায় খুব অল্প বয়স থেকেই। তাই মানসিক চাপের শিকার শুধু বড় বাচ্চারা হয় না, একদম ছোট বাচ্চাদের মধ্যে উদ্বেগ ও হতাশা দেখা দিতে পারে।

পারিপার্শ্বিক কোনো ঘটনার কারণেও তারা অবসাদে আচ্ছন্ন হয়ে যেতে পারে। ছোটবেলা থেকে সন্তান যদি মানসিক চাপের মধ্যে থাকে, তা হলে তা তার ব্যবহারে বড় প্রভাব ফেলবে। উদ্বেগ ও মানসিক চাপের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। বড়রা মানসিক চাপের মধ্যে থাকলে যে রকম ব্যবহার করেন, বাচ্চারা কিন্তু তা করে না। তাদের হাবভাবেই আপনাকে বুঝতে হবে যে তারা মানসিক চাপের মধ্যে আছে কি না। বাচ্চাদের মধ্যে মানসিক চাপের লক্ষণগুলি চিনে নিন।

দুঃস্বপ্ন দেখা
কোনো শিশু উদ্বেগ ও আশঙ্কার মধ্যে দিন কাটালে ঘুমের মধ্যে সে নিয়মিতভাবে দুঃস্বপ্ন দেখে। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, ছোটরা ঘুমের মধ্যে আতঙ্কে কেঁপে কেঁপে ওঠে। এমনটা প্রায়শই হলে বোঝার চেষ্টা করুন, তার মনের মধ্যে জমে থাকা ভয়টা ঠিক কোথায়।

বিছানা ভিজিয়ে ফেলা
মানসিক চাপে থাকা শিশুরা নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। সব সময়ে তাদের মনে কাজ করে অজানা আতঙ্ক। এই কারণে অনেক শিশুই বিছানা ভিজিয়ে ফেলে। এমনটা হলে রাগারাগি করবেন না। এর কারণ কী, সেটা বোঝার চেষ্টা করুন।

খাওয়াদাওয়ায় অনীহা
শিশুরা যদি মানসিক অশান্তিতে ভোগে, তা হলে তার ছাপ পড়বে তাদের খাওয়াদাওয়ার ওপরেও। হয় সে কম খাচ্ছে, না হলে খুব বেশি খাচ্ছে। দুটোই কিন্তু ভালো লক্ষণ নয়। আপনার সন্তানের ক্ষেত্রেও কি এমনটাই হচ্ছে? তা হলে ওর সঙ্গে কথা বলে গল্পের ছলে সমস্যাটা বোঝার চেষ্টা করুন।

আক্রমণাত্মক আচরণ
মানসিক চাপের মধ্যে থাকলে আমরা অনেক সময় অল্পতে রেগে যাই। ঠিক এ রকম বাচ্চাদের ক্ষেত্রেও ঘটতে পারে। কোনো পরিস্থিতি সামাল দিতে না পারলে তারা আক্রমণাত্মক হয়ে উঠতে পারে। হঠাৎ যদি দেখেন আপনার সন্তান অকারণেই চিত্‍কার করছে, কারো সঙ্গে কথা বলতে চাইছে না কিংবা কথায় কথায় অন্যের উপর হাত চালাচ্ছে, তবে তা উদ্বেগ ও আতঙ্কের লক্ষণ হিসেবে জানবেন। এই লক্ষণগুলি কখনই অবহেলা করবেন না। প্রয়োজনে কোনো মনোবিদের সাহায্য নিতেও দ্বিধাবোধ করবেন না।

মনোসংযোগের অভাব
আপনার সন্তান কি হঠাৎ খুব অমনোযোগী হয়ে উঠেছে? স্কুলের কাজ সময় মতো শেষ করতে পারছে না? খেলাধুলাতেও ওর মন নেই? হতেই পারে পড়াশোনা বা খেলাধুলোয় আরও ভালো করার চাপে সে মনোসংযোগ হারিয়ে ফেলেছে। চেষ্টা করুন কথা বলে ওর মনের উদ্বেগ দূর করার। - আনন্দবাজার

উইমেনআই২৪ডটকম//জ// ১৭-০৫-২০২২//০৫.৪৫ পি এম 
 

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
মগবাজারে ভবনে আগুন         ৫-১২ বছর শিশুরা ফাইজারের টিকা পাবে         ২৭ জুলাই থেকে ঢাকা-টরন্টো বিমানের ফ্লাইট         গাড়ির চাপ না থাকায় শিমুলিয়ার দুই ফেরি আরিচা         পদ্মা সেতুতে টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী         উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা শিল্পায়নকে ত্বরান্বিত করে: প্রধানমন্ত্রী         করোনা টিকা মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়: ডা. আলমগীর হোসেন         ঢাবির ‘খ’ ইউনিটে প্রথম নুয়েল         বন্যাকবলিত এলাকা ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী         ঢাবি ‘খ’ ইউনিটে ৯০ শতাংশই ফেল         টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রকে হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ         প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ইসলামী ব্যাংকের ১০ কোটি টাকা         পদ্মা সেতু পারাপারে যাত্রীদের দায়িত্বশীল হতে হবে: কাদের         ডিজিটাল সংযোগ স্থাপনে ২ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প         নেত্রকোনায় বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে হুয়াওয়ে         দূর্গাপুর উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে সমাবেশ         বড় শিরোপা জেতার এখনই সময়         ছাত্রের মারধরে আইসিইউতে থাকা সেই শিক্ষকের মৃত্যু         বিএসএমএমইউর অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের আহ্বায়ক কমিটি গঠন         দেশে ফিরেছেন রওশন এরশাদ