বৃহস্পতিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
২৬ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

ইভিএম এর মাধ্যমে কারচুপির সম্ভবনা রয়েছে : জিএম কাদের

শাহীন মোলহেমঃ জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা  জি এম কাদের বলেছেন, ব্যক্তিগতভাবে ইভিএম নিয়ে আমার অভিজ্ঞতা আছে। যেহেতু আমি টেকনিক্যাল লাইনের ছাত্র ছিলাম এবং চাকুরিও ছিলো। ইভিএম সর্ম্পকে যতোটুকু বুঝি প্রশাসনের পক্ষ  থেকে যারা ইভিএম পরিচালনা করবেন, তাদের তরফ থেকে এটার মাধ্যমে কারচুপি করা সম্ভবনা আছে এবং সম্ভব। তার কোন প্রমান আমাদের সিস্টেমে রাখার পদ্ধতি  বা উপায় নেই।
এমনকি ইভিএম নির্বাচনে কেউ চ্যালেঞ্জও করতে পারে না, কারণ ব্যালট পেপার থাকে মেশিনের ভিতরে। একান্ত এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ভোটিং মেশিন যে রেজাল্ট দিবে, তাই ঘোষণা হবে। বিষয়টি হচ্ছে, এমন দেশের মানুষকে  চাঁদে পাঠাতে চাচ্ছে সরকার কিন্তু সেখানে বসবাসের পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি। তিনি বলেন, এভাবে চলতে থাকলে গণতন্ত্রের স্বপ্ন শেষ হয়ে যাবে। বিরোধীদলীয় উপনেতা আরো বলেন, প্রশাসন যদি এটার মাধ্যমে কাউকে জেতাতে চায় কাউকে হারাতে চায় তাহলে প্রশাসন সেটা ইভিএমের মাধ্যমে করতে পারবেন। এমন কি যার কোন প্রমান থাকবে না। যার বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করা সহজ সাধ্য হবে না বলে জানালেন তিনি। জি এম কাদের বলেন, আমাদের দেশের পরিস্থিতিতে নিরক্ষরতার জন্য নির্বাচনে যে দেশে নামের পাশে প্রতিক ব্যবহার করতে হয় কারণ,সবাই প্রার্থীর নাম পড়ে ভোট দিতে পারে না। এমন বাস্তবতায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেয়া যুক্তি যুক্ত হবে না।  তিনি আরো বলেন,শুধু ইলেকশন কমিশনার নয়,আমাদের দেশে যতোগুলো সাংবিধানিক যতো পদ এবং প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেগুলোর নিয়োগ করেন  রাস্ট্রপতি। রাস্ট্রপতির কাছে থেকে কোন কিছু আসলেই আমাদের সংবিধানের নিয়ম অনুযায়ি তা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়।  দুটি কাজ ছাড়া সব কাজ রাস্ট্রপতিকে প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি নিয়ে  করতে হয়। কোন কিছু যদি সংসদে পাঠানো  হয় তার অর্থ প্রধানমন্ত্রীর সম্মতির জন্য। প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিলেই হবে। কোন কিছু যদি রাস্ট্রপতির কাছে দেওয়া হয় সেটাও প্রধানমন্ত্রীর সম্মতির জন্যই দেওয়া হয়। তাই সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান সবগুলো প্রধানমন্ত্রী তাদের নিয়োগ দিতে পারেন, অপসারন ক্ষমতাটা একবার নেওয়ার পরে তা কোর্টের ওয়ার্ডারে বাতিল হয়েগেছে, সেটা যদি তিনি বহাল করতে পারতেন সেটাও তিনি করতেন।  এছাড়াও জনবলকাঠামো অর্থায়ন সব কিছুতেই প্রধানমন্ত্রীর প্রভাব সরাসরি প্রভাব বিস্তার করার সুযোগ রয়েছে। সেখানে এধরনের প্রশাসনের অধিনে যখন নির্বাচন কমিশন থাকে  এবং  সব কিছুতেই প্রধান নির্বাহী বা প্রধানমন্ত্রীর মুখাপেক্ষি হতে হয়, সেখানে তাদের নিরপেক্ষভাবে কাজ করা খুবই দূরুহ । তারা হয়তো একটি কাজ করতে পারেন, আমার ব্যক্তিগত ধারণা সেটা হলো নির্বাচনগুলোকে বানচাল ঘোষণা দিতে পারে,যদি তারা চান এবং সে ধরনের মনোবৃত্তি থাকে। জি এম কাদের আরে বলেন, নির্বাচনটি ভালো হয়নি আমরা এটা গ্রহণ করলাম না করতে পারেন । পুনরায়  আবার নির্বাচন হতে পারে। ১০বার ৫০বার হলেও নির্বাচনের সঠিক ফলাফল ঘোষণা দিতে হবে যদি সরকার না চান তাহলে তাদের পক্ষে সেই কাজটি তাদের পক্ষে করার  সম্ভবনা রয়েছে বলে তিনি মনে করেন ।


উইমেনআই২৪ ডটকম//এল 10. am

 

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা: ফাঁসির আসামি গ্রেপ্তার         বিশ্বে করোনার তাণ্ডবে বেড়েছে মৃত্যু, কমেছে আক্রান্ত         সিরাজগঞ্জে ট্রাক-লেগুনা সংঘর্ষে নিহত ৪         ‘ইভিএম ভার্চুয়ালি ম্যানুপুলেট করা অসম্ভব’         কর্মসংস্থান ব্যাংকে নিয়োগ পেলেন যারা         রোবট তৈরির উৎসবে মেতেছে কুমিল্লার শিক্ষার্থীরা         ‘বিশ্বে আমাদের সম্মান বেড়েছে’         আমি বেঁচে আছি: হানিফ সংকেত         মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হুজির প্রতিষ্ঠাতা মুফতি হাই গ্রেপ্তার         বিদ্যুৎ সংযোগ পেল পদ্মা সেতু         শনিবার দেশে পৌঁছাবে গাফফার চৌধুরীর মরদেহ         নারীর ক্ষমতায়নে দক্ষতা-সক্ষমতা বাড়ানোর আহ্বান         নায়িকা এমিকে সন্তান নেওয়ার পরামর্শ দিলেন পরীমনি         দীপিকার উপহার পেয়ে বাকরুদ্ধ শাশ্বতর মেয়ে         পিটিআইয়ের ‘আজাদী মার্চ’, গ্রেপ্তার হতে পারেন ইমরান খান         নজরুলের লেখনী অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে শেখায়: রাষ্ট্রপতি         মানুষের মুক্তি আর সাম্যের জয়গানে স্বতন্ত্র নজরুল: তথ্যমন্ত্রী         মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক নূরুল ইসলামের মৃত্যুবার্ষিকী পালন         পরিবেশ রক্ষা করে উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         সংসদের জন্য ৩৪১ কোটি ৮৯ লাখ টাকার বাজেট