শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮
২২ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

মুখের আঁচিল দূর করার উপায়

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: ঝকঝকে ত্বকের মাঝে উঁচুনিচু আঁচিল সত্যিই চাঁদে কলঙ্কের মতো। এই সমস্যায় লেজার ট্রিটমেন্টে সহজেই সুরাহা মেলে। জানাচ্ছেন স্কিনভিটা ক্লিনিকের ডার্মাটোলজিস্ট ডা. শচীন ভর্মা। প্রীতিকা দত্ত।

ত্বকের একরকম সমস্যার নাম আঁচিল। অনেকেরই তেমন কোনও ব্যথা বা চুলকানি না থাকলেও এই আঁচিল নিয়ে ভালরকম নাজেহাল হন। আসলে শরীরের বাইরের অংশে আঁচিল থাকলে, সেটা দেখতে খারাপ লাগে। কিন্তু জানেন কী, মাত্র কয়েক মিনিটের লেজার ট্রিটমেন্টের সাহায্যে সরিয়ে ফেলা যায় শরীরের যে কোনও জায়গার আঁচিল। অনেক সময় আঁচিল ভাইরাস (Mole Virus) সংক্রমণে হয়। কোনওটা আবার সূর্যের কিরণ থেকে হয়। আর মানুষের শরীরে জন্মগত কালো বা লাল তিল তো রয়েছেই।

আঁচিলের ধরন: ওয়ার্টস যাকে সাদা বাংলায় সাধারণত আঁচিল বলা হয়, সেগুলি মোটের উপর তিন প্রকারের। এক, ‘ভেরুকা’ বা ‘ওয়ার্টস। যা এক বিশেষ ধরনের ভাইরাসের (হিউম্যান পপিলোমা ভাইরাস) কারণে হয়ে থাকে। সবচেয়ে ভয়ের কথা, এই ধরনের আঁচিল ছোঁয়াচে। রোগীর দেহেও বেশ দ্রুত ছড়ায়। রোগীর গামছা শেয়ার করলে বা শেভিং কিট অন্য কেউ ব্যবহার করলে এই রোগ অন্যের শরীরেও সহজেই সংক্রমিত হতে পারে। দুই, ‘অ্যাক্রোকর্ডন’ বা ‘স্কিনট্যাগ’। শুনতে জটিল মনে হলেও এটি তুলনামূলকভাবে কম ক্ষতিকর। যাঁদের শরীরে ওজন বেশি, তাঁদের ঘাড়, কনুই বা থাইয়ের মাঝের ত্বকে এক ধরনের গুটি দেখা যায়। এগুলি ঠিক আঁচিল নয়।

সাধারণত, শরীরে হরমোনের অসামঞ্জস্য দেখা দিলে এই সমস্যার মুখোমুখি হন অনেকে। সব শেষে, লাল বা কালো তিল। ইংরেজিতে যাকে বলে ‘মোল’। সাধারণ কালো রঙের হয়। এবং জন্মগত। কোনও কোনও ক্ষেত্রে সূর্যের কিরণ থেকেও ত্বকে কালো স্পট তৈরি হয়। আবার শরীরের কোনও ছোট্ট ব্লাড ভেসেল ফেটে লাল রংয়ের তিলও দেখা যায়। যাকে ডাক্তারি পরিভাষায় বলে চেরি অ্যাঞ্জিওমা। যদি এই তিল আকারে বাড়তে থাকে এবং রক্তপাত হয়, তাহলে সতর্ক হওয়া জরুরি। কারণ, তিল থেকে অনেকের ক্যানসারও হতে পারে। তিল আর আঁচিলের ভেদ বোঝার সহজ উপায় হল, তিল থেকে চুল গজায়।

লেজারে মুক্তি: ওয়ার্টস বা আঁচিল বুঝতে থাইরয়েড, প্রজেস্টেরন, ইস্ট্রোজেন ইত্যাদি হরমোন লেভেল পরীক্ষা করে দেখা হয়। ওষুধ দিয়ে ওই আঁচিল থেকে মুক্তি মেলে না। অনেকে বাড়িতেই চুন, অ্যাসিড দিয়ে আঁচিল শরীর থেকে বাদ দিতে চান। সেক্ষেত্রে ফল আরও খারাপ হয়। কারণ, এতে ত্বক পুড়ে যায়। আজকাল আঁচিল সরিয়ে ফেলতে সবচেয়ে ভরসাযোগ্য পদ্ধতি হল লেজার। ট্রিটমেন্টের নাম সিওটু লেজার। আঁচিল হোক বা তিল, রিমুভ করার পর কোনও দাগও থাকে না। এই লেজার পদ্ধতিতে খুব যে খরচসাপেক্ষ তেমনটাও নয়। মিনিট দশেকের ছোট্ট লেজার পদ্ধতি খুবই সামান্য। একটা সিটিংয়েই কাজ হয়। এছাড়াও রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি সার্জারি, ক্রায়ো সার্জারি রয়েছে আঁচিল তোলার জন্য। সূর্যের কিরণ থেকে যে তিল বা মোল হয়, তার থেকে বাঁচতে ভাল সানস্ক্রিন ব্যবহার করা জরুরি।

উইমেনআই২৪//এএসইউ//

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
বিএনপি নেতারা নিজেদের অক্ষমতা আড়াল করতে পুরনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছে: কাদের         হিন্দুদের ওপর হামলা দেশের চেতনার বেদীমূলে হামলা: তথ্যমন্ত্রী         প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডের গভর্নর জেনারেল হলেন আদিবাসী নারী         বন্ধ মিল চালুর জন্য কর্মপরিকল্পনা দাখিলের নির্দেশ বিএসএফআইসই'র         প্রেমের জালে ফাঁসিয়ে প্রেমিকদের হত্যা করতেন ৭৪ বছরের বৃদ্ধা         রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’র পক্ষ থেকে ৩০ বিশিষ্ট নাগরিকের বিবৃতি         কাঁথার ব্যবসা করেই ই-কমার্স উদ্যোক্তা বেন্তি         টানা দ্বিতীয় বার ম্যাচসেরা হয়ে যা বললেন সাকিব         বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ         মায়ের আশ্রয় হয়নি ডাক্তার-ব্যাংকার ছেলের ঘরে         ফেসবুক লাইভে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড         আইপিএলে ৫০ টাকায় কোটিপতি নাপিত!         কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম         ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭০ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে         জাপা চেয়ারম্যান এর সাথে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ         ইসলামী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত         নভেম্বরে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনায় সারাদেশে ১০ মৃত্যু ,শনাক্ত ২৪৩         বাল্য বিবাহ: ইউপি চেয়ারম্যান, সাংবাদিকসহ ৯ জনের কারাদণ্ড         পাপুয়া নিউ গিনিকে বড় টার্গেট দিল বাংলাদেশ