মঙ্গলবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

নিজেদের ঘর পেলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি: ‌‌‘পথই ছিল যাদের ঠিকানা, পথই ছিল যাদের ঘর আজ বলবো তাদের কথা’ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে নিজের জায়গায় ও নিজেদের ঘরে ফেরার স্বপ্ন পূরণ হলো তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সম্প্রদায়ের মানুষদের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘর পেয়ে খুশি তারা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, এ উপজেলায় তৃতীয় লিঙ্গের ভাতাভোগীর সংখ্যা ১৮ জন, ঘর পেয়েছে ৯ জন, এছাড়া ভাতা ছাড়া রয়েছে ৬ জন। মুজিববর্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের সেমিপাকা ঘর দেওয়ার প্রকল্প হাতে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই প্রকল্পের বাস্তবায়নই হচ্ছে এই তৃতীয় লিঙ্গের সম্প্রদায়ের মানুষের স্বপ্ন পূরণের ঘর। পৌর এলাকার তাড়িয়াপাড়া গ্রামের তৃতীয় লিঙ্গের সম্প্রদায়ের জন্য নির্মিত প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পের ৯ টি ঘর পেয়েছেন তারা। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী আলহাজ ডা. মুরাদ হাসান, ইউএনও শিহাব উদ্দিন আহমেদ ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবিরকে জানিয়েছেন ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা।

ময়না তৃতীয় লিঙ্গের সম্প্রদায়ের একজন। একদিন ফোন পেলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর থেকে। ময়না গেলেন তার সহযোগীদের নিয়ে। এরপর যেন স্বপ্নের মত বদলে গেল তাদের জীবন। মুজিব জন্মশতবর্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার একটি সেমি পাকা ঘর পেলেন তারা। ঘর পেয়ে তার অনুভুতির কথা জানতে চাইলে তিনি আকাশের দিকে তাকিয়ে ভেজা চোখ নিয়ে বললেন, এতোদিন আমার কোনো ঘর ছিল না। অনেকেই আমাদেরকে ঘর ভাড়াও দিতো না। তবে এখন আর অন্যের বাড়িতে থাকতে হবে না। এখন আমার নিজের ঘর আছে, থাকার জায়গা আছে। তবে আমার একটাই অনুরোধ এ উপজেলার অন্য সহযোগী হিজরা যারা ঘর পায়নি তাদেরকে যেন ঘর দেয়া হয়।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ‘তৃতীয় লিঙ্গের জন্য ৯টি ঘর নিয়ে সবচেয়ে বেশি আন্তরিক থেকেছি। ঘর তৈরির প্রতিটা ধাপেই খুব আনন্দ লেগেছে, সব অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে পেরেছি। ময়নাসহ তার নতুন প্রতিবেশীরা ঘর পেয়ে আনন্দিত। এতো আনন্দের মধ্যেও ময়না অন্যদের কথা ভুলতে পারেন না। তিনি আবদার জানালেন, যারা এখনো ঘর পায়নি সেই অন্য সহযোগী হিজড়াদেরও যেন সরকারি সেমিপাকা ঘর দেয়া হয়।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘তৃতীয় লিঙ্গের এসব অসহায় মানুষ ছাড়াও প্রতিবন্ধী, বিধবা ও ভূমিহীনদের ঘর ও জমি দেওয়ার জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। সমাজে অবহেলিত এসব তৃতীয় লিঙ্গের অসহায় মানুষেরা যেন গৃহহীন না থাকে সে জন্য আমরা কাজ করছি। তাদেরকে বিভিন্ন কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিতেও আমরা কাজ করছি।’

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
উন্নয়নের রূপকার শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ         সংগ্রাম ও সাহসের এক নাম শেখ হাসিনা         প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে টিকা ক্যাম্পেইন শুরু কাল         ডেঙ্গুতে আজও দুই মৃত্যু, শনাক্ত ২১৪         রেলের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে ভারত: রেলমন্ত্রী         শেখ হাসিনার জন্মদিনে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি         ঢাবির সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার         শেখ হাসিনা এক জীবন্ত কিংবদন্তি: তথ্যমন্ত্রী         করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু-শনাক্ত         ইউপি নির্বাচনে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিরীহ পারুলকে খুন         নিজ ঘরে মিলল নারী ব্যাংক কর্মকর্তার লাশ         চোর সন্দেহে নারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ         জেল থেকে মুক্তি পেল ফিলিস্তিনি নেতা খালিদা জারা         ভারতের উপকূল অতিক্রম করেছে ‘গুলাব’, নামল সংকেত         ১৪ নভেম্বর এসএসসি, ২ ডিসেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা         জার্মানির নির্বাচনে হেরে গেল মারকেলের দল         রাজনীতিকে বিদায় জানালেন প্রণবকন্যা শর্মিষ্ঠা         নারী সংখ্যাগরিষ্ঠ সংসদ গড়ে আইসল্যান্ডের ইতিহাস         আফগানিস্তানের বন্ধ হচ্ছে নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণকেন্দ্র         মধ্যরাতে শিশু পুত্রকে গলা কেটে হত্যা করলেন মা         করোনা : সংক্রমণে যুক্তরাজ্য, প্রাণহানিতে শীর্ষে রাশিয়া