বৃহস্পতিবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮
০৫ আগস্ট ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

‘নারীদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হবে’

উইমেনআই২৪ প্রতিবেদক: বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের উদ্যোগে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয়  স্থায়ী কমিটির সঙ্গে ‘নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা : প্রতিকারের সমন্বিত পদক্ষেপ’ শীর্ষক অনলাইন মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত এ সভায় মডারেটর হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী (সাবেক) এবং এই মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয়  স্থায়ী কমিটির সভাপতি সংসদ সদস্য বেগম মেহের আফরোজ, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাংসদ মো. আব্দুল আজিজ ও সংসদ সদস্য বেগম শবনম জাহান।

স্বাগত বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘সরকারি ও বেসরকারিভাবে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও সামগ্রিকভাবে নারীর মানবাধিকার রক্ষা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাড়িয়েছে। এমতাবস্থায় সকলে মিলে নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে কীভাবে সমন্বিতভাবে কাজ করা যায়, কীভাবে সংসদ সদস্যদের যুক্ত করা যায় সেলক্ষ্যে আজকের মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।’

অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাপতি সংসদ সদস্য বেগম মেহের আফরোজ বলেন, ‘সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে কাজ করতে জনপ্রতিনিধিরা সবসময় সঙ্গে আছেন, উভয়ে মিলে সমস্যা সমাধান করতে হবে। আইন আছে তবে বাস্তবায়নে বাধা আছে। সহিংসতা আছে কেননা সমাজ এখনো সচেতন হয়নি, অনেক পিছিয়ে আছে। কিশোর গ্যাং কেন তৈরি হচ্ছে তা আমাদের এখনই খুঁজে বের করতে হবে, নয়তো একসময় তা ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘নারীর প্রতি সহিংসতা একটি প্রাচীন প্রথা যা পুরুষতান্ত্রিক সমাজের ক্ষমতার বহি:প্রকাশ। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে নারীদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হবে, একইসঙ্গে জেন্ডার বাজেট মনিটরিং ও নারী উন্নয়ন নীতির পূর্ণ বাস্তবায়ন করার দাবিও তিনি তুলে ধরেন।  তিনি সহিংসতা প্রতিরোধে সংসদীয়  স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্যদেরকে ও মহিলা পরিষদকে একত্রে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, ‘করোনাকালীন সময়েও প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শিতাসম্পন্ন নেতৃত্বের কারণে এবং নারী ও কন্যাদের জন্য নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা অব্যাহত আছে। উন্নয়নের পথে প্রতিবন্ধকতা হিসেবে চিহ্নিত নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সরকার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।’ এ সময় সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় নারীর প্রতি সহিংসতা নির্মূলের লক্ষ্য বাস্তবায়ন সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। সমাজ পরিবর্তনের আন্দোলনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সবসময় মহিলা পরিষদের পাশে আছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

মত-বিনিময় সভায় উপস্থিত সংসদ সদস্য শবনম জাহান বলেন, ‘আমাদের সরকার নারীবান্ধব সরকার।’ সহিংসতা প্রতিরোধে সরকার প্রণীত নানা আইনের উল্লেখ করে বলেন, ‘নারী ও শিশুর রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব কেবল সরকার বা কোন প্রতিষ্ঠানের নয় বরং পরিবারকেও দায়িত্ব নিতে হবে। পুলিশি তৎপরতা এবং আদালতের মাধ্যমে অপরাধীদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসা হচ্ছে, মহিলা মন্ত্রণালয়ও নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, সহিংসতা প্রতিরোধে অনলাইন সেবা চালু করা হয়েছে। এসময় তিনি সকল অপরাধীকে বিচারের আওতায় নিয়ে আসার জন্য ও  ১৮০ দিনের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির দাবি জানান। পাশাপাশি তিনি করোনাকালীন সময়ে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধসহ অন্যান্য অপরাধ দমনে সরকারসহ সকলে কাজ করছে বলে উল্লেখ করেন।

সংসদ সদস্য ডা. মো. আব্দুল আজিজ সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আজকের আলোচনা সময় উপযোগী একটি আলোচনা। তিনি নারী ও শিশুর কল্যাণে প্রধানমন্ত্রীর অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘যারা সহিংসতার শিকার হয় তাদের নিগৃহীত না করে সহায়তা করতে হবে, ভিকটিমকে দোষারোপ করা যাবেনা। প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের প্রতিনিধিত্ব তৈরি হচ্ছে, মহিলা ও শিশু মন্ত্রণালয় প্রতিটি সমস্যা নিয়ে প্রতিনিয়ত সভা করছে, কাজ করছে, যা সবসময় অব্যাহত থাকবে। এসময়ে বাল্যবিবাহ বেড়েছে, এটি প্রতিরোধে এবং সহিংসতা প্রতিরোধে জনপ্রশাসনের সকলকে সম্পৃক্ত করে কাজ চলমান আছে।’  শিশু গ্যাংদের প্রতিহত করতে, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে এবং নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে তিনি জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে এলাকা ভাগ করে মহিলা পরিষদ, সংসদ সদস্য এবংঅন্যান্য এনজিওকে সমন্বিতভাবে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান। সমন্বিতভাবে কাজ করলে এই সমাজ থেকে ধর্ষক দূর হবে ও সকল অপরাধ দূর হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত আন্দোলন সম্পাদক রেখা চৌধুরী ।

তিনি করোনাকালে নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা আগের চেয়ে বেড়ে যাওয়ায় সংগঠনের পক্ষে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘শিশু ও তরুণ নারীদের যৌন হয়রানি, ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’ তিনি গত ছয় মাসে  নারী ও কন্যার প্রতি সংঘটিত নানা ঘটনা ও ঘটনার পরিসংখ্যান তুলে ধরেন। এসময় তিনি ঘটনা বৃদ্ধির জন্য বেআইনি সালিশ, বেআইনি ফতোয়া, আইন ও বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা, বিদ্যমান আইন যথাযথ সময়ে যথাযথ বাস্তবায়ন না হওয়া এবং সহিংসতার শিকার নারী ও কন্যার সকল পর্যায়ে নিরাপত্তা, নিরাপদ আশ্রয়, ন্যায়বিচার প্রাপ্তির অভাবসমূহকে উল্লেখ করে কয়েকটি সুপারিশ তুলে ধরেন।

মডারেটরের বক্তব্যে সংগঠনের  সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, ‘নারীর জীবনের অনেক দৃশ্যমান উন্নতি হয়েছে কিন্তু যখন এই উন্নয়ন ধারা বাধা দেয়ায় একটি গোষ্ঠী তৎপর হয়ে উঠে, সমস্যা সমাধানে যখন সুষ্ঠু পদক্ষেপ নেয়া হয়না তখন এসব ঘটনা নারী আন্দোলনের কর্মী হিসেবে আমাদের আতংকিত করে তোলে । নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রীর গৃহীত নানা পদক্ষেপের ফলেও নারীর প্রতি সহিংসতা কমছে না। নারীর প্রতি সহিংসতাকে জাতীয় ইস্যু হিসেবে দেখতে হবে।’

এসময় তিনি নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোথে প্রণীত আইনের ধারাসমূহের উল্লেখ করে বলেন, ‘আমরা কতটা লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারলাম সেটি দেখতে হবে। অপরাধ ও ক্ষমতা একত্রে চলতে থাকলে নারীকে মানুষ হিসেবে ভাবার মত পরিবার বা সমাজ তৈরি করা কখনোই সম্ভব নয়।’ তিনি  নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সমন্বিত রূপরেখা তৈরি ওবাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ, সহিংসতার ঘটনা সংসদে উত্থাপন, সাইবার অপরাধ দমন, ঘটনা প্রতিরোধে দ্রুত আইনি বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা এবং কালো টাকার ব্যবহার ও বিচারহীনতার সংস্কৃতির নিষ্পত্তির দাবি জানান।

মতবিনিময় সভায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সদস্যবৃন্দ এবং সংগঠনের কর্মকর্তাসহ ৩০ জন উপস্থিত ছিলেন।

 

শীর্ষ সংবাদ:
‘পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে’         ‘৬৯৭ নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার’         এডহক বার কাউন্সিল গঠন করেছে সরকার         ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে জিয়া যুক্ত ছিলেন’         সিরিজ জয়ে এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ         মাদকসহ পরীমনি আটক         ২৪ ঘণ্টায় আরো ২৪১ জনের মৃত্যু         পরীমনির বাসায় অভিযান চলছে         টিকা দেওয়া নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার         ফিফার সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এক বছর নিষিদ্ধ         রূপগঞ্জে আগুন: ২৪ জনের লাশ বুঝে পেল পরিবার         কানাডায় অবস্থানরত মুক্তিযোদ্ধাদের মিলনমেলা         টিকা ছাড়া বের হওয়া প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের বক্তব্য         বিশ্ব রেকর্ড গুঁড়িয়ে ম্যাকলাফলিনের সোনা জয়         টোকিও অলিম্পিকসে ব্রিটিশ কিশোরীর ইতিহাস         ঢাকায় আসছে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট দল         বজ্রপাতে ১৬ বরযাত্রীর প্রাণহানি         বঙ্গবন্ধুকে দাফনের আগেই তারা হয়ে যান খুনী মোশতাকের!         ঝুমন দাশের মুক্তির দাবিতে ছাত্রজনতার প্রতিবাদ সমাবেশ         পীরগঞ্জে করোনা প্রতিরোধক বুথ উদ্বোধন