বুধবার, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮
২৮ জুলাই ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

রিচার্জেবল ব্যাটারি ও রান্নার তেল থেকে অগ্নিকাণ্ড হতে পারে

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: আজকাল খেলনা থেকে শুরু করে ইলেকট্রিক গাড়ি বা সাইকেলেও রিচার্জেবল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়৷ শক্তিশালী এই ব্যাটারিতে সহজেই আগুন ধরে যেতে পারে৷

বাসায় আজকাল অনেক ডিভাইসের মধ্যে রিচার্জেবল ব্যাটারি থাকে৷ বিশেষ পরিস্থিতিতে সেগুলি বিপদের কারণ হয়ে উঠতে পারে৷ বড় আকারের এক লিথিয়াম-পলিমার রিচার্জেবল ব্যাটারির মধ্যে শর্ট সার্কিট ঘটালে তার পরিণাম স্পষ্ট হয়ে যায়৷ সঙ্গে সঙ্গে বিষাক্ত ধোঁয়া বেরিয়ে আসে৷ কিছুক্ষণ পরেই ব্যাটারিতে আগুন ধরে যায়৷ এমনকি ধাক্কা অথবা ভুল চার্জিংয়ের কারণে সামান্য ক্ষতি হলেও আগুন ধরে যেতে পারে৷ আগুনের তেজ কমতে কয়েক মিনিট লেগে যায়৷

অগ্নি নির্বাপক বিশেষজ্ঞ টোমাস স্মিড বলেন, ‘‘পলিমার ব্যাটারি প্যাকের ব্যবহার বেড়ে চলেছে৷ ইলেকট্রিক গাড়িতেও সেই ব্যাটারি বসানো হচ্ছে৷ প্রত্যেকটি ই-বাইকের মধ্যেও পলিমার ব্যাটারি থাকায় প্রায়ই আগুন লেগে যাচ্ছে৷ ক্ষয়ক্ষতি ঘটলে অথবা চার্জিংয়ের সময় উপস্থিত না থাকলে এমনটা ঘটতে পারে৷''

এফআর টাওয়ার নামের ২২ তলা ভবনটির অবস্থান ঢাকার বনানীতে৷ এখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় রয়েছে৷ বৃহস্পতিবার দুপুরে ভবনটিতে আগুন লাগে৷

এবার বিপজ্জনক এক্সপেরিমেন্টের পালা৷ রান্নাঘরে রান্নার তেল কতটা মারাত্মক হতে পারে, তা দেখাতে দমকলকর্মীরা গ্যাসের স্টোভে তেল গরম করছেন৷ সাধারণ চুলার ক্ষেত্রেও একই পরিণাম ঘটতে পারে৷ টোমাস স্মিড মনে করিয়ে দিলেন, ‘‘বাসার রান্নাঘরে চুলার উপর কড়ার তাপমাত্রা ২৩০ থেকে ২৪০ ডিগ্রির মতো ছুঁলে ধোঁয়া বের হবে৷ সাধারণত স্মোক ডিটেক্টর সেটা টের পায়৷ অ্যালার্মের শব্দে টনক নড়লে দ্রুত আগুন বন্ধ করে কড়া সরিয়ে নিলে আর কোনো অঘটন ঘটার কথা নয়৷''

কিন্তু তেল যদি আরো গরম হতে থাকে, তখন কী ঘটবে? ২৫০ থেকে ৩০০ ডিগ্রি ছুঁলে আগুন ধরে যাবে৷ ঢাকনা দিয়ে আগুনের শিখা নেভানোর চেষ্টা করেও লাভ নেই৷ কারণ ঠাণ্ডা হবার সময় কম থাকায় আগুনের শিখা কড়া থেকে বেরিয়ে আসবে৷

এমন অবস্থায় কী করা যায়? টোমাস স্মিড বলেন, ‘‘আপনি আগুন দেখছেন৷ পাশেই বেসিন রয়েছে৷ পানি দিয়ে আগুন নেভানোর তাগিদ জাগতে  পারে৷ কিন্তু তেলের ক্ষেত্রে এর চেয়ে বড় ভুল আর হতে পারে না৷''

চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডের পর উদ্ধারকাজ আপাতত শেষ ঘোষণা করেছে ফায়ার সার্ভিস৷ এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা অন্তত ৮১ বলে জানিয়েছে উদ্ধারকর্মীরা৷ এরমধ্যে ৪ শিশু, ৫ নারী রয়েছে৷

দমকলকর্মীরা অবশ্যই নিরাপদ দূরত্ব রেখে হাতেনাতে সেই ভুলের পরিণাম দেখিয়ে দিলেন৷ কারণ, কেউ সেই সময় চুলার পাশে থাকলে ভীষণভাবে পুড়ে যেতে পারে৷

তেলের মধ্যে বিস্ফোরণের কারণ বুঝতে হবে৷ জ্বলন্ত তেলের তুলনায় পানির ঘনত্ব অনেক বেশি৷ ফলে পানি কড়ার নীচে তলিয়ে যায়৷ সেই অংশটি এত গরম যে সঙ্গে সঙ্গে বাষ্পীভবন ঘটে৷

ফলে মাত্র এক লিটার পানি থেকে ১,৭০০ লিটার জলীয় বাষ্প সৃষ্টি হয়৷ সেই বাষ্পের তোড়ে তেল দ্রুত ছিটকে যায়৷ ডয়চে ভেলে

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
‘শুধু একটু মুখ ফুটে বলতে হবে’         ‘পরীক্ষা করান, টিকা নিন’         রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের বিরুদ্ধে ফরাসি আইনজীবীর লিগ্যাল নোটিশ         আইভীর বাড়িতে শামীম ওসমান         সালিশি বৈঠকে চেয়ারম্যানের ওপর অতর্কিত হামলা         গ্রহবধূ এবং স্কুলছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ         ২৪ ঘণ্টায় আরো ২৫৮ জনের মৃত্যু         'অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত'         ঘর পরিষ্কার করুন নিয়ম মেনে         জিন্স পরায় পিটুনি খেয়ে প্রাণ হারালেন কিশোরী         পাহাড় ধসে ৬ রোহিঙ্গার প্রাণহানি         ‘ভালো কাজে পুরস্কার, খারাপ কাজে শাস্তি’         বজ্রপাতে বাবা-ছেলের মৃত্যু         সব মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ল         এবার বাংলা টিভি চ্যানেলে সানি লিওন’র কোমড় দোলা         মহারাষ্ট্রে বন্যায় প্রাণহানি বেড়ে ১৯২         কূটনীতিক রেজিনা আহমেদের ক্যারিয়ারের গল্প         ‘লিবিয়া উপকূলে নৌকা ডুবে ৫৭ অভিবাসীর মৃত্যু’         ঋতাভরীর বিয়ে আগামী বছর, বন্ধু হবেন বর