সোমবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৮
২১ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

১১ বছর পর পাশের বাড়িতে মেয়ের খোঁজ

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: ১১ বছর ধরে নিখোঁজ মেয়ে। বাবা-মাও সন্তানকে পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। অথচ তখনকার সেই ১৮ বছরের তরুণী দীর্ঘ ১১ বছর ধরে নিজ বাড়ির পাশেই একটি রুমে বাস করছিলেন। এমনই আজব ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালা রাজ্যে।

জানা গেছে, ভালোবেসে বাবা-মায়ের ঘর ছেড়ে মাত্র ৫০০ মিটার দূরে প্রেমিক আলিনচুবাত্তিল রহমানের বাড়িতে উঠেছিলেন ১৮ বছরের সাজিতা। সেখানেই একটি ঘরে ১১ বছর কাটিয়ে দিয়েছেন। তার বাবা-মা তো দূরের কথা রহমানের বাবা-মাও সাজিতার অস্তিত্ব টের পাননি।

রহমানের বয়স এখন ৩৪ বছর। তিন মাস আগে নিখোঁজ হন তিনি। এরপর তার পরিবার পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে। কিন্তু রহমানের বড় ভাই বশির মঙ্গলবার হঠাৎ তাকে এক জায়গায় দেখতে পান। তখন রহমান খুঁজতে গিয়ে সন্ধান মেলে সাজিতারও। দুজনে একটি গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকছিল।

এরপর পুলিশ তাদের স্থানীয় একটি আদালতে হাজির করে। কিন্তু আদালতে গিয়ে সাজিতা বলেন, তিনি রহমানের সঙ্গেই থাকতে চান। এরপর তাদের একসঙ্গে থাকার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। পুলিশ জানায়, ভিন্ন ধর্মের হওয়ায় নিজেদের সম্পর্কের কথা এতোদিন গোপন রাখেন এই দুজন।

দ্য হিন্দু জানায়, ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের এক রাতে ঘর ছাড়েন সাজিতা। হেঁটে পাশেই প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে ওঠেন তখন ১৮ বছরের এই তরুণী। এরপর পুলিশ সব জায়গায় খোঁজ করেও তার সন্ধান পেতে ব্যর্থ হয়। ওই সময় সাজিতার কাছে কোনও মোবাইল ফোনও ছিল না।

পুলিশ জানায়, তারা রহমানকে কখনও সন্দেহ করেনি। কেউ তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে জানতোও না। পালিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে দুজনই নিখোঁজ হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে এমন কিছু ঘটেনি।

পুরো ঘটনার রহস্য উন্মোচন করেছেন আলিনচুবাত্তিল রহমানের বড় ভাই বশির। তিনি বলেন, তার ভাইয়ের একটি আলাদা রুম ছিল। সেটা তালা লাগিয়ে রাখতো সে। কাউকেই ঢুকতে দিতো না। রহমান মাথা গরম তাই বাবা-মাও তাকে ঘাটাতো না। দিনের বেলাতেও ওই ঘরে গিয়ে খাবার খেতো সে। আমরা যখন কাজে সবাই বাইরে থাকতাম তখন রহমান ও সাজিতা একসঙ্গে থাকতো।

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
ধানমন্ত্রীকে কটূক্তি: টাঙ্গাইল পৌর প্যানেল মেয়রের পদ স্থগিত         বেজা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান হলেন শেখ ইউসুফ হারুন         স্মার্ট ফোন কিনে না দেওয়ায় তরুণের আত্মহত্যা         যেভাবে ঘুমালে ত্বকের সৌন্দর্য্য বাড়ে!         ভোটগ্রহণ ভালো হয়েছে: ইসি সচিব         সাংবাদিক নির্যাতন দিবসে অবিলম্বে তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশের দাবি         হাতকড়ায় বাঁধা দম্পত্তির ভালোবাসার গল্প         ‘তার কাছে বেগম জিয়ার চেয়েও চিত্রনায়িকা গুরুত্বপূর্ণ’         দেশের আরো ৭ জেলায় লকডাউন         ‘নারী কাউন্সিলরের ক্ষেত্রে ‘সংরক্ষিত’ কথাটি বাদ দিতে হবে’         বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির রহস্য ফাঁস         দেশে বৈদেশিক বিনিয়োগ কমেছে প্রায় ১১ শতাংশ         শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের জামিন স্থগিতই থাকছে         পুকুরে ডুবে কিশোরের প্রাণহানি         পরীমণির বিরুদ্ধে আবারো ভাঙচুরের অভিযোগ         ভালুকায় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় প্রাণহানি ৩         মালয়েশিয়ায় আটক ১০২ বাংলাদেশি         চরফ্যাশনে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রাণহানি ১         যুক্তরাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ শিশুসহ প্রাণহানি ১০         উন্নত দেশে অভিবাসন শুধুই কী প্রশান্তির!         যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কানাডা ও মেক্সিকো সীমান্ত বন্ধের মেয়াদ বাড়লো