শুক্রবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৮
১৮ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

নেহাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিলেন মা-বাবা!

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: সামাজিক মাধ্যমে ভক্তদের শুভেচ্ছা বার্তার বানভাসি। ৩৩-এ পা রাখলেন নেহা কক্কর। বিয়ের পর প্রথম জন্মদিন গায়িকার। স্বামী রোহনপ্রীত সিংহও আলাদা করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্ত্রীকে।

এমনই এক জন্মদিনে বোনের সত্যিকারের জীবনকথা সামনে এনেছিলেন দাদা টনি কক্কর। জানিয়েছিলেন, কক্কর পরিবারের অবাঞ্ছিত সন্তান নেহা! গর্ভপাত করে নেহাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিলেন তাদের মা-বাবা।

কেন নেহাকে জন্ম দিতে চাননি কক্কর দম্পতি? টনির মতে, ‘আমরা প্রচণ্ড গরিব ছিলাম। সংসারের আর্থিক অবস্থা ক্রমশ খারাপ হচ্ছিল। তত দিনে আমি আর সোনু জন্মেছি। মা তাই আর সন্তান চাননি। কিন্তু অজান্তেই নেহাকে গর্ভে ধারণ করে ফেলেছেন।’

নেহার দাদার দাবি, জানার পরেই তিনি গর্ভপাত করাতে চান। কিন্তু তত দিনে গর্ভস্থ সন্তানের বয়স ৮ মাস পেরিয়ে গেছে। অবশেষে এক গ্রীষ্মের বিকেলে জন্ম নেন নেহা।

প্রচণ্ড অভাবের মধ্যে বড় হয়েছেন নেহা-সোনু-টনি। ছোটবেলায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ভজন গেয়ে সংসার চালিয়েছেন সোনু-নেহা। বরাবরই নেহার পথপ্রদর্শক সোনু। তিনিই বোনকে গানবাজনায় হাতেখড়ি দিয়েছিলেন।

পরবর্তীতে গানের রিয়েলিটি শো ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এ অংশ নেওয়ার পরেই ভাগ্য বদলে যায় নেহার। জনপ্রিয় গায়িকার জীবনের এই অধ্যায় প্রথম প্রকাশ্যে আসে ২০১৭ সালে ইউটিউবে।

শীর্ষ সংবাদ:
মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা তুলে নিচ্ছে স্পেন         বিএনপি নেত্রী নিপুন রায়ের মুক্তি         'আত্মগোপনে ছিলেন ত্ব-হা'         ঢাবিতে ভর্তি ও ফরম ফিল-আপ করা যাবে অনলাইনে         মাইক্রোসফটের নতুন চেয়ারম্যান ভারতীয় বংশোদ্ভূত সত্য নাদেলা         বিচারকদের ভর্ৎসনার মুখে অভিনেত্রী         অন্তর্বাসের মডেল হলেন প্রিয়াঙ্কা         খোঁজ মিলল আবু ত্ব-হার         চীন থেকে টিকা দেশে পৌঁছালো         ৩৫তম ফোবানা সম্মেলনের নতুন দিনক্ষণ নির্ধারণ         রাজশাহীতে করোনায় আরো ১২ জনের মৃত্যু         ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে কয়েক কোটি টাকা উধাও         গার্ড অব অনার নিয়ে ধূম্রজাল কেন?         অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা পাবেন বিদেশগামী কর্মীরা         যুক্তরাষ্ট্র গেলেন সাকিব         মহাকাশ স্টেশন নির্মাণে নভোচারী পাঠাল চীন         তসবি পাঠ করে ১২৪ নারীর অর্থ উপার্জন!         গায়ে হলুদের গান বাজাতে গিয়ে প্রাণ গেল বরের         ‘দেশে গণমাধ্যমের অবাধ বিকাশ ঘটেছে’         ঠাকুরগাঁওয়ে মাদকসেবনে বৃদ্ধের মৃত্যু!         ‘বিদেশে চাকুরি প্রত্যাশীদের সতর্ক থাকতে হবে’