সোমবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৮
২১ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

চলছে সন্ধ্যা রায়ের জীবনমরণ লড়াই

মিলি সুলতানা: সাদা কালো পর্দা পরবর্তীতে রঙিন পর্দার স্নেহময়ী জননী কিংবা লক্ষ্মীমন্ত বউ ইমেজের সন্ধ্যা রায় উপমহাদেশের শক্তিময়ী অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায় (৭৫) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই দিন আগে। তাঁর অক্সিজেন স্যাচুরেশন কমে যাওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জীবনের একটা সময় কঠিন লড়াই করেছিলেন সন্ধ্যা রায়। সেই লড়াই শুরু একদম শৈশব থেকে। তিনি ৭ বছর বয়সে তার বাবাকে এবং ৯ বছর বয়সে মাকে হারান। তাঁর একজন ভাই আছে। তাঁর মা-বাবার মৃত্যুর পর তিনি তাঁর মামার কাছে চলে যান এবং মামা মামীর সংসারে বড় হন।

সন্ধ্যা রায়ের পৈত্রিক নিবাস যশোরের বেজপাড়াতে। শৈশবকালেই তাঁর মাতৃ ও পিতৃ বিয়োগের কারণে তাঁর লেখাপড়া বিঘ্নিত হয়। সেই সময়ের শাস্ত্র সংস্কৃতি চর্চার প্রাণকেন্দ্র মফস্বল শহর যশোরেও দেশ বিভাগের অস্থিরতা আছড়ে পড়েছিল। তারপর দেশ ত্যাগের হিড়িক। সন্ধ্যা রায়ও এক সময় চলে যান পশ্চিমবঙ্গে। প্রথমে নবদ্বীপে এবং পরবর্তীতে কোলকাতায় আত্মীয় স্বজনের সাথে বসবাস শুরু করেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির ময়দানেও তিনি যথেষ্ট পরিচিত। তিনি সর্ব ভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হিসেবে ২০১৪-র সাধারণ নির্বাচনে ১৬ তম লোকসভা নির্বাচনে নির্বাচিত হন। মহানায়ক উত্তম কুমার সন্ধ্যা রায়কে আদর করে ''সন্ধ্যামণি'' ডাকতেন। সত্যজিৎ রায়ের 'অশনি সংকেত' ছবির জন্য একবার বার্লিন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে গিয়েছিলেন সন্ধ্যা রায়। সকলে বিদেশী পোশাক পরলেও তিনি সেই চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটে হেঁটেছিলেন লাল পাড় সাদা সিল্ক শাড়ি পরে। তার সঙ্গে মানানসই মুক্তোর সেট পরেছিলেন। সেদিন দেশি বিদেশি ফটো সাংবাদিকদের ক্যামেরার ফ্ল্যাশ মুহুর্মুহু জ্বলে উঠেছিল সন্ধ্যা রায়ের উপর। 

১৯৬৭ সালে সন্ধ্যা রায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন গুণী পরিচালক তরুণ মজুমদারের সঙ্গে। কিন্তু একসময় তাঁদের বিচ্ছেদ ঘটে। আমরা গুনী এই তারকার নিরোগ জীবন কামনা করছি।

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
ধানমন্ত্রীকে কটূক্তি: টাঙ্গাইল পৌর প্যানেল মেয়রের পদ স্থগিত         বেজা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান হলেন শেখ ইউসুফ হারুন         স্মার্ট ফোন কিনে না দেওয়ায় তরুণের আত্মহত্যা         যেভাবে ঘুমালে ত্বকের সৌন্দর্য্য বাড়ে!         ভোটগ্রহণ ভালো হয়েছে: ইসি সচিব         সাংবাদিক নির্যাতন দিবসে অবিলম্বে তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশের দাবি         হাতকড়ায় বাঁধা দম্পত্তির ভালোবাসার গল্প         ‘তার কাছে বেগম জিয়ার চেয়েও চিত্রনায়িকা গুরুত্বপূর্ণ’         দেশের আরো ৭ জেলায় লকডাউন         ‘নারী কাউন্সিলরের ক্ষেত্রে ‘সংরক্ষিত’ কথাটি বাদ দিতে হবে’         বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির রহস্য ফাঁস         দেশে বৈদেশিক বিনিয়োগ কমেছে প্রায় ১১ শতাংশ         শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের জামিন স্থগিতই থাকছে         পুকুরে ডুবে কিশোরের প্রাণহানি         পরীমণির বিরুদ্ধে আবারো ভাঙচুরের অভিযোগ         ভালুকায় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় প্রাণহানি ৩         মালয়েশিয়ায় আটক ১০২ বাংলাদেশি         চরফ্যাশনে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রাণহানি ১         যুক্তরাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ শিশুসহ প্রাণহানি ১০         উন্নত দেশে অভিবাসন শুধুই কী প্রশান্তির!         যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কানাডা ও মেক্সিকো সীমান্ত বন্ধের মেয়াদ বাড়লো