শুক্রবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৮
১৮ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

৪৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার পর বদমাশ ব্যাটা পালিয়ে যায়

রাখি নাহিদ


আফ্রিকার উগান্ডার অধিবাসী মারিয়াম নবট্যানজি বিয়ের পর টানা পাঁচ বার যমজ সন্তানের জন্ম দেবার পর বুঝতে পারেন তার কোন শারীরিক সমস্যা আছে। পরীক্ষা নিরিক্ষার পরে জানতে পারেন তাঁর ডিম্বাশয়ের আকার বেশ বড় এবং তিনি অত্যন্ত ফার্টাইল। কিন্তু কোনও রকম গর্ভনিয়ন্ত্রণের ওষুধ বা অপারেশন তাঁর ক্ষেত্রে প্রাণঘাতী হতে পারে!

মারিয়ম তাঁর স্বামীর সঙ্গে আলোচনা করেন, তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু মারিয়মের কথায় কান দেননি তাঁর স্বামী। ফলে এর পর চার বার ত্রিপলেট ও পাঁচ বার কোয়াড্রুপলেট জন্ম দেন মারিয়ম।

সর্বমোট ৪৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার পর ব্যাটা বদমাশ মরিয়ম এবং সন্তানদের ফেলে আরেকজনকে বিয়ে করে পালিয়ে যায়। ৪৪ জনের মধ্যে শেষ পর্যন্ত বেঁচে যাওয়া ৩৮ সন্তানের ভরণ পোষনের পুরো দায়িত্ব তারপর থেকে ৩৯ বছর বয়সী মরিয়মই পালন করছেন। শত অভাবের মাঝেও সন্তানদের খাইয়ে বাঁচিয়ে রেখেছেন মারিয়াম। এটা একটা রেয়ার ঘটনা। কোটিতে হয়ত এক জনের এরকম হয়।

তবুও বললাম একটা বিশেষ কারণে। জংলী, অশিক্ষিতা, আদিবাসী হোক আর শিক্ষিতা সফস্টিকেটেড সিভিলাইজড হোক, মা এর পরিচয় মা ই। এক মায়ের দায়িত্ব নিতে ১০ সন্তানেরও মাঝে মাঝে কষ্ট হয় কিন্তু মা একাই ৩৮ সন্তানের দায়িত্বও হাসিমুখে নেন।

ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের ৩১ বছর বয়সী প্রেমা সেলভাম সম্প্রতি তার তিন সন্তানকে এক বেলা খাওয়ানোর জন্যে ১৫০ রুপিতে নিজের মাথার চুল বিক্রি করে দেন। চুল বিক্রী করে ৬০ রুপি দিয়ে তিন প্যাকেট ভাত আর অন্যান্য খাবার কিনে সন্তানদেরকে খেতে দিয়ে সেই দৃশ্য চোখ ভরে দেখেন প্রেমা। আহারে মা।

আমার পরিচিতা এক ভদ্রমহিলা মাত্র ৩২ /৩৩ বছর বয়সে ক্যান্সারে মারা যান। তিন সন্তানের জননী যখন প্রথম প্রথম শারীরীক অসুবিধা বোধ করতেন, তখনও কিছু নয়, মেয়েদের এত নরম হলে চলে না বলে নিজের অসুবিধাকে পাত্তাই দেন নি।

উপসর্গ যখন আরও বেড়েছে তখন সংসারের কাজ থেকে ফুরসত নিয়ে ডাক্তার দেখালেন, ডাক্তার গাদা গাদা টেস্ট ধরিয়ে দিলেন। তারপর বাচ্চাদের ক্লাস টেস্ট, মিড টার্ম নইলে ফাইনাল এই করে করে আর যাওয়াই হয়নি টেস্ট করাতে। বাচ্চাদের পরীক্ষায় সাফল্যের সাথে পাশ করিয়ে যখন উনি নিজের শরীর পরীক্ষা করালেন তখন তার ক্যান্সারের লাস্ট স্টেজ। মাত্র মাস ছয়েক যুদ্ধ করেই তিন সন্তানকে জীবনের পরীক্ষায় একা ফেলে চলে যান সেই মা। মায়েরা এতই নিঃস্বার্থ যে মাঝে মাঝে এটাও ভুলে যান যে সন্তানের জন্যই তার সুস্থ থাকা, বেঁচে থাকা প্রয়োজন।

শীর্ষ সংবাদ:
বিএনপি নেত্রী নিপুন রায়ের মুক্তি         'আত্মগোপনে ছিলেন ত্ব-হা'         ঢাবিতে ভর্তি ও ফরম ফিল-আপ করা যাবে অনলাইনে         মাইক্রোসফটের নতুন চেয়ারম্যান ভারতীয় বংশোদ্ভূত সত্য নাদেলা         বিচারকদের ভর্ৎসনার মুখে অভিনেত্রী         অন্তর্বাসের মডেল হলেন প্রিয়াঙ্কা         খোঁজ মিলল আবু ত্ব-হার         চীন থেকে টিকা দেশে পৌঁছালো         ৩৫তম ফোবানা সম্মেলনের নতুন দিনক্ষণ নির্ধারণ         রাজশাহীতে করোনায় আরো ১২ জনের মৃত্যু         ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে কয়েক কোটি টাকা উধাও         গার্ড অব অনার নিয়ে ধূম্রজাল কেন?         অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা পাবেন বিদেশগামী কর্মীরা         যুক্তরাষ্ট্র গেলেন সাকিব         মহাকাশ স্টেশন নির্মাণে নভোচারী পাঠাল চীন         তসবি পাঠ করে ১২৪ নারীর অর্থ উপার্জন!         গায়ে হলুদের গান বাজাতে গিয়ে প্রাণ গেল বরের         ‘দেশে গণমাধ্যমের অবাধ বিকাশ ঘটেছে’         ঠাকুরগাঁওয়ে মাদকসেবনে বৃদ্ধের মৃত্যু!         ‘বিদেশে চাকুরি প্রত্যাশীদের সতর্ক থাকতে হবে’         নারী যেভাবে ডিজিটাল যৌন অপরাধের শিকার হচ্ছেন