মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
১৮ মে ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

‘ব্যবসার জন্য প্রস্তুতি দরকার’

খাদিজা খানম তাহমিনা: ছোটবেলা থেকেই মেয়েটি ফ্যাশন সচেতন ছিলো। নিজের জামা নিজেই ডিজাইন করে পরতো। কোথাও গেলে যেকেউ তার পরা জামার প্রশংসা করতো এবং কোথা থেকে কিনেছে জানতে চাইতো। যখন জানতো যে এটা এই ছোট্ট মেয়েটির নিজের ডিজাইন করা জামা, তখন অবাক হয়ে যেতো। ছোটবেলাতেই শখের বশে, হাতের বিভিন্ন কাজ শিখেছে।

সালমা রহমান আঁখি। ডিজাইনার এবং স্বত্বাধিকারী আঁখি’স কালেকশানস। দেশীয় মেটেরিয়ালসে বুটিকস এবং হ্যান্ডমেইড জুয়েলারি  নিয়ে কাজ করছেন। দীর্ঘ বাইশ বছর ধরে তিনি একই পেশায় আছেন। জন্মস্থান ঢাকার খিলগাঁওতে। খিলগাঁও মডেল হাই স্কুল থেকে এস এস সি পাশ করেন। পল্টন গার্লস কলেজ থেকে মাধ্যমিক এবং সিদ্ধেশ্বরী থেকে গ্র্যাজুয়েশান কমপ্লিট করেন। মাল্টি মিডিয়া নিয়ে কাজ করার খুব শখ ছিল বলে এপটেক থেকে মাল্টিমিডিয়ার উপর ডিপ্লোমাও করেন। 
জড়িত আছেন বেশ কিছু সংস্থার সাথে। তিনি উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরাম -উই এর এক্সিকিউটিভ মেম্বার, ইয়ুথ ক্যারিয়ার ইন্সটিটিউটের ফ্যাশন ডিজাইনার প্যানেল এ্যাডভাইজার(ঢাকা), বাংলাদেশ হস্তশিল্প এসোসিয়েশন এর উপদেষ্টা এবং আজীবন সদস্য। তাঁর প্রোডাক্ট যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। দেশের বাইরে তাঁর আছে প্রচুর ক্রেতা। বিশেষ করে ইন্ডিয়া, লন্ডন, কানাডায় আমার আঁখি কালেকশনস থেকে প্রোডাক্ট যায়, এছাড়াও আরও কয়েকটা দেশে তাঁর প্রোডাক্টের চাহিদা রয়েছে।

উইমেনআই টুয়েন্টিফোর ডটকম’র পক্ষ থেকে কথা বলেছিলাম সফল নারী উদ্যোক্তা আঁখি'স কালেকশনস এর স্বত্বাধিকারী সালমা রহমান আঁখির সাথে....

প্রশ্ন: বুটিক ব্যবসায় কেনো এসেছেন, শুরুটা কিভাবে হলো?

সালমা রহমান আঁখি: বুটিক বিজনেসে আসবো এটা আসলে কোনোদিনও ভাবিনি। ছোট বেলা থেকেই খুব ফ্যাশন সচেতন ছিলাম। নিজের জামা নিজেই ডিজাইন করতাম। আর আমার পরা জামা গুলো দেখে যেখানেই যেতাম সবাই একবার হলেও জিজ্ঞেস করতো কোথা থেকে কিনেছি ? যখন শুনতো আমারই করা তখন বলতো আমাকে একটা করে দাও। এদিকে শখ করেই ছোট বেলা থেকে আমি বিভিন্ন রকমের হাতের কাজ শিখেছি। যুব উন্নয়ন , বিসিক থেকে বিভিন্ন রকমের ট্রেনিং নিয়েছি। এমনকি শখের বসে কলেজে যাবার আগে একজনের বাসায় যেয়ে মোম বানানোও শিখেছি। যেগুলো নাকি পরবর্তীতে আমার ভীষণ কাজে লেগেছে। সেগুলো আবার নিজের জামাতে করতাম। সেটা আবার আশেপাশের সবাই খুব পছন্দ করতো আর বলতো আমাকেও করে দাও। তখন আমি একটু একটু ভাবছি বিজনেসের কথা। কলেজে পড়ার সময়ই আমার প্রথম শো রুম দিয়ে শুরু। প্রথম ১৯৯৭ সালে যাত্রা শুরু করি। এখনও করে যাচ্ছি একই বিজনেস।

প্রশ্ন: বুটিক হাউজ ব্যবসার চাহিদা কেমন?

সালমা রহমান আঁখি: আসলে ১৯৯৭/৯৮ সালে যেমন বুটিক ব্যবসার প্রচুর চাহিদা ছিল এখনও সমান চাহিদা আছে। তখনকার চাইতে দ্বিগুন কম্পিটেশন এখন। এখন সবাই চায় কিছু একটা করতে, নিজের পায়ে দাঁড়াতে। আমাদের দৈনন্দিন জীবনেরই যেহেতু একটা পার্ট বস্ত্র তাই এটির চাহিদা কখনই কমে না। দিন দিন নিত্য নতুন ডিজাইনেই বুটিকের চাহিদা বেড়েই চলেছে।

প্রশ্ন: এই বুটিক হাউজ ব্যবসায় কি পরিমান পুঁজির দরকার হয়?

সালমা রহমান আঁখি: বুটিক ব্যবসা আজকাল বিনা পুঁজিতেও যে কেও শুরু করতে পারবে। এই অনলাইনের যুগে কেউ একজন তার ইউনিক কোনো প্রোডাক্টের ছবি তুলে আপলোড করে তা সেল করে সেটির প্রফিট দিয়ে দ্বিগুন প্রোডাক্ট কিনে ব্যবসা রান করাতে পারে।

প্রশ্ন: বাজার সম্ভাবনা কেমন এখন?

সালমা রহমান আঁখি: একজন বুটিক করে খুব ভাল বিজনেজ করছে দেখে সাথে সাথে অন্যরাও সেটি করা শুরু করে না দিয়ে, তাদের নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে ইউনিক ডিজাইনের একেবারে আলাদা কিছু নিয়ে ব্যবসা শুরু করলে বাজারে এর সম্ভাবনা অনেক বেশি। কারণ ক্রেতারা চায় নিত্য নতুন সব কিছু। সেভাবে মেধা খাটিয়ে যদি কিছু করা যায় তাহলে অনেক দূর এগিয়ে যাওয়া যাবে।

প্রশ্ন: এই ব্যবসায় আসতে হলে কি কি প্রস্তুতির প্রয়োজন?

সালমা রহমান আঁখি: শুধু বুটিক ব্যবসা না, যে কোন ব্যবসার জন্যই কিন্তু প্রস্তুতির দরকার আছে। আর এখনতো আরো বেশি দরকার, কারণ বাজারে প্রচুর কম্পিটেশন এখন। ঠিক যেটি নিয়ে কাজ করবো সেটি সম্পর্কে কিছু ট্রেনিং নিলে বা ধারণা থাকলে সেটি নিয়ে কাজ করতে অনেক সুবিধা হবে। হাল ফ্যাশান কি, কোন ঋতুতে কি রং, সামনে কি ফ্যাশন আসছে- এসব ছোট ছোট বিষয়গুলোয় ধারণা থাকা খুবই জরুরি।

প্রশ্ন: ব্যবসা শুরুর আগে কোনো কাগজপত্র, বা কোনো লাইসেন্স করতে হয় কি, যদি হয় তাহলে সেটা কিভাবে করতে হয়?

সালমা রহমান আঁখি: অবশ্যই জরুরি। যে কোন কাজের জন্যই ব্যবসায়িক কাগজপত্র অনেক বেশি দরকার। প্রথমেই ট্রেড লাইসেন্সটা করে নিতে হবে। যেটি দিয়ে পরবর্তিতে উদ্যোক্তারা ছোট ছোট লোন নিয়ে তাদের কাজ চালাতে পারেন। ওয়েবসাইটের জন্য ডোমেন কিনে রাখতে পারেন। এগুলোর জন্য বিভিন্ন ই কর্মাস কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করলেও হবে। আমাদের ই-ক্যাবও করে থাকে এইকাজ গুলো।

প্রশ্ন: প্রচারই প্রসার, এই বুটিক হাউজ ব্যবসার বর্তমান করোনাকালীন সময়ে প্রসার বা প্রচার কিভাবে করছেন?

সালমা রহমান আঁখি: প্রচার না করলে কি প্রসার হয়? আজকাল তো অনেক সহজ হয়ে গেছে প্রচারের কাজটি। আমাদের সময় তো দৈনিক পত্রিকা বা ঈদ সংখ্যা গুলোই ছিল ভরসা। আর এখন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে কত সহজ! ফেসবুক, ইন্সট্রাগ্রাম, টুইটার, লিংকইনড, ইউটিউব কত কিছু, যেখানে খুব সহজেই প্রচার করে নিজের প্রোডাক্টের প্রসার ঘটানো সম্ভব, এবং আমরা সেভাবেই করে যাচ্ছি। এই করোনায় যেহেতু শোরুম গুলোতে লোকজন কম আসছে, সেহেতু প্রচার বা প্রসারের জন্য আপাতত উপরোক্ত মাধ্যমগুলোই ভরসা।

প্রশ্ন: ক্রেতাদের সাথে যোগাযোগ, কারিগর নিয়োগ, কাঁচামাল সংগ্রহ এসব সম্পর্কে যারা আসতে চায়, তাদের একটু ধারণা দিন।

সালমা রহমান আঁখি: সরাসরি ক্রেতাদের সাথে যোগাযোগ থাকলে প্রোডাক্ট সম্পর্কে একটি ধারণা হবে যে, তারা কতটা সেটিসফাইড আপনার কাজ নিয়ে। তাই ক্রেতাদের যতটা টাচে থাকা যায়, ততটা ভালো। আর অনলাইন হলে কাস্টমারের সাথে কনভারসেশানের মাধ্যমেও যোগাযোগ করা যায়।

কারিগর নিয়োগে প্রথমেই দেখতে হবে, যেকাজে তাকে নিব, সেকাজে তার পারদর্শিতা কতটা আছে, আদৌ সে কাজ জানে কী-না, কতটা দক্ষ। একজন দক্ষ কারিগরই পারে কম সময়ে একটি ডিজাইনকে ফুটিয়ে তুলতে।

ব্যবসায় নামার আগেই কাঁচামাল সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। কারণ যা দিয়ে প্রোডাক্ট রেডি করবো, তা কোথায় পাওয়া যায়, তাই যদি না জানি তাহলে তো হিমশিম খেতে হবে এবং অনেক ঠকতে হবে। তাই এ সম্পর্কে বিশদভাবে জানাশোনা থাকতে হবে।

প্রশ্ন: বুটিক হাউজ ব্যবসা শুরুর আগে, কোনো প্রশিক্ষণ নিতে হয় কি? যদি নিতে হয়, তাহলে কোথায় কিভাবে নিতে পারবে কেউ?

সালমা রহমান আঁখি: অবশ্যই প্রশিক্ষণ নেয়া দরকার। বিসিক, যুব উন্নয়ন বা এমন অনেক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আছে, যাঁরা হাতে কলমে শেখায়। সেখান থেকে খুব কম খরচে এসব ট্রেনিংগুলো নিতে পারবে যে কেউ।

প্রশ্ন: আপনার বুটিক হাউজটির নাম কি এবং সেটি কোথায়?

সালমা রহমান আঁখি: আমার বুটিক হাউজের নাম আঁখিস কালেকশন । শোরুম ঢাকার মালিবাগে। যদিও করোনার জন্য আমরা এখন শোরুমটি বন্ধ রেখেছি। ধানমন্ডিতে শিফট করার আয়োজন চলছে। সবার দোয়া চাই।

প্রশ্ন: ঈদকে সামনে রেখে এবার কি করছেন, কিভাবে মার্কেটিং করছেন?

সালমা রহমান আঁখি: আসলে এই প্যানডামিকে ঈদকে সামনে রেখে বড় ইনভেস্টমেন্টে যেতে আমরা উদ্যোক্তারা খুব ভয়ে আছি। অর্থনৈতিক অবস্থা আসলে কারোরই ভাল না। মসলিনের একটি এক্সক্লুসিভ শাড়ি বা কামিজ সেট করলে এই করোনায় কতজন তা এফোর্ট করতে পারবে? তাই এবার আঁখিস কালেকশান মিডিয়াম রেঞ্জের মধ্যে কিছু কাজ করেছে, যাতে সকল ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে। আর যেহেতু শোরুমে কেনাকাটা তেমন হচ্ছে না, তাই অনলাইনই ভরসা। আমার যদিও মেইনলি অনলাইনেই সব, তাই মার্কেটিংটাও খুব বেশি করতে হয়। আর সেটির জন্য ফেসবুক পেইজ, গ্রুপ এবং ইন্সট্রাগ্রামেই প্রচারটা করে যাচ্ছি এবং আল্লাহর রহমতে প্রচুর সারা পাচ্ছি। 
 

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
সাংবাদিক হেনস্থা করায় দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে         স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট করায় আমার সাথে অন্যায় হচ্ছে : রোজিনা         রিমান্ড নাকচ, সাংবাদিক রোজিনাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ         স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্রিফিং বয়কটের ঘোষণা সাংবাদিকদের         রোজিনা ইসলামকে ৫ দিনের রিমান্ডে চায় পুলিশ         সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নেওয়া হলো আদালতে         একজন সাংবাদিকের প্রথম কাজ সত্য খুঁজে বের করা         রোজিনাকে সচিবালয়ে আটকে রেখে মারধর         প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা         রোজিনা ছিঁচকে চোর না, সে এদেশের সবচেয়ে নন্দিত সাংবাদিক         আমার বিরুদ্ধেও মামলা দেন         সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সুচিকিৎসা দিয়ে দায়িত্ব পালনে ফিরে যেতে দেওয়া হোক         পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকে         প্রথম আলোর রিপোর্টারকে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগে আটকে হেনস্থা করা হয়েছে         জীবনযুদ্ধে জয়ী আকলিমা চাকরি পেলেন পৌরসভায়         মাথাপিছু আয় এখন ২২২৭ ডলার         সংবাদ মাধ্যমের অফিস লক্ষ্য করে ইসরাইলি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে জাতীয় প্রেস ক্লাব         ভারতফেরত তরুণীকে কো'য়ারেন্টিনে ‘ধ'র্ষণ’, এএসআই গ্রে'প্তার         সেদিন অনেক ঝড় মাথায় নিয়েই দেশে এসেছিলাম: শেখ হাসিনা         ব্যাংক কর্মকর্তারা দুর্নীতি করলে জরিমানা-মামলা         পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত বর্ডার বন্ধ