সোমবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
১৭ মে ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

‘ট্রাম্প ডায়ানার জন্য প্রচুর মহামূল্যবান উপহার পাঠাতেন’

মিলি সুলতানা: ‘ইউএস সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নারী প্রীতির কাহিনী সব জায়গায় চাউর আছে। ট্রাম্প একসময় প্রিন্সেস ডায়ানার প্রতি অনুরক্ত/ অনুরাগী ছিলেন। ডায়ানার মত অপরূপ সৌন্দর্যের দেবীর প্রতি গোটা বিশ্ব আকৃষ্ট ছিল। বিশ্বের খ্যাতিমান ব্যক্তিদের জীবনে দ্বিতীয় তৃতীয় চতুর্থ নারী /পুরুষের আবির্ভাব হয়েছে। অনেক সময় মানুষ সেটাকে নেগেটিভলি নিয়েছে। কেউ পজিটিভলি নিয়েছে। কিন্তু প্রিন্সেস ডায়ানাই একমাত্র ম্যাগনিফিসেন্ট পার্সোনালিটি যাঁর জীবনে পুরুষের আগমনকে মানুষ নেতিবাচকভাবে নেয়নি। বরং তাঁর প্রতি মানুষের ভালবাসা সহানুভূতি ছিল। সেটা বেঁচে থাকতে যেমন, মৃত্যুর পরেও তেমন আছে। এর একটা কারণ অবশ্যই আছে। রাজমাতা এলিজাবেথ ডায়ানার প্রতি অবিচার করেছেন। রাজপ্রাসাদের চাকচিক্যময় ইট দামী পাথর রত্নের ভেতর ডায়ানার ডুকরে ডুকরে কাঁদার চিহ্ন আছে।’

‘ডোনাল্ড ট্রাম্প ১৯৯৭ সালে "The art of the comeback" নামে একটা বই লেখেন। শোনা গেছে সেই বইতে ট্রাম্প প্রিন্সেস  ডায়ানার প্রতি তার দুর্বলতার কথা লিখেছেন। ওয়ান সাইডেড লাভ জোনে ছিলেন তিনি।  ডায়ানা ট্রাম্পের দুর্বলতার কথা জানতেন। তবে তিনি নির্লিপ্ত ছিলেন। ধনকুবের ট্রাম্প ডায়ানার জন্য প্রচুর মহামূল্যবান উপহার পাঠাতেন। তিনি ডায়ানাকে প্রচুর অর্থ দিয়েছেন তাঁর লাভ অ্যাটেনশন নেয়ার জন্য। জানা গেছে ডায়ানা সেসব অর্থের অধিকাংশই চ্যারিটিতে দান করেছেন। এটা ডায়ানাই ট্রাম্পকে জানিয়েছিলেন। শুনে ট্রাম্প খুশি হয়ে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুর কাছে বলেছিলেন, ডায়ানাকে আমি অর্থ উপহার দিয়েছি। সেই অর্থ তিনি কোন কাজে ব্যয় করবেন সেটা সম্পূর্ণ তার এখতিয়ার।" ট্রাম্প এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, ডায়ানা সত্যিকারের সুন্দরী। প্রিন্স চার্লস তাঁর সৌন্দর্য বুঝতে পারেননি। এটা নিশ্চয়ই প্রিন্সের দুর্ভাগ্য।" ১৯৯৫ সালে নিউইয়র্কে এক ডিনার পার্টিতে ডায়ানার সাথে ট্রাম্পের প্রথম সাক্ষাৎ হয়। প্রথম দেখার পরই ডায়ানার সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে পড়েন। ১৯৯৭ সালে ডায়ানার আকস্মিক মৃত্যুতে সবার মত ট্রাম্পও বিমর্ষ হয়েছিলেন।’’

Mujib Borsho

সর্বশেষ

শীর্ষ সংবাদ:
২৩ মে বঙ্গবন্ধুর ‘জুলিও কুরি’ পদকপ্রাপ্তির ৪৭তম বার্ষিকী         খুন হওয়ার মাসখানেক আগেও মিতুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয় !         করোনায় আরও ৩২ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ৬৯৮         রিমান্ড শেষে জবানবন্দি দিলেন বাবুল আক্তার         বিধিনিষেধ বাড়বে কি না নির্ভর করছে ভারতের পরিস্থিতির ওপর         মিস ইউনিভার্স হলেন মেক্সিকান সুন্দরী         ফিলিস্তিনিদের বাঁচাতে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান বাংলাদেশের         বিএনপি তাদের নেত্রীর জন্য একদিন আন্দোলনও করতে পারেনি: কাদের         মেয়েদের সবচেয়ে বেশি খুন-ধর্ষণ কারা করে?         চীনা টিকার প্রথম ডোজ শুরু ২৫ মে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী         সেই খোরশেদের বিরুদ্ধে সায়েদা শিউলির আইসিটি আইনে মামলা         আমাকেও গ্রেফতার করুন: মমতা         উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমাতে এবিএম আবদুল্লাহর ১০ পরামর্শ         গাজায় সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিনে ৪২ জন নিহত         ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ, গুনতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া         শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক         শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ         কানাডা অন্টারিও আওয়ামী লীগের ভার্চুয়াল আলোচনা         কাউকেই কোভিড-১৯ টিকা উৎপাদনের অনুমতি দেয়া হয়নি: ওষুধ প্রশাসনের বিবৃতি         রাজধানীতে ছেলের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা         নোবেলের সঙ্গে চুক্তি বাতিল সাউন্ডটেকের