বৃহস্পতিবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭
২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

বিখ্যাত ব্যক্তিদের সাক্ষাৎকার সম্বলিত 'ইন্টারভিউ উইথ হিস্ট্রি' বইয়ের বাংলা অনুবাদ

শাহরিয়ার স্বপন: 'আমি নিরামিষভোজী নই। আমি সবজি পছন্দ করি। আমি মাংসও খাই। আমার অত্যন্ত বেদনাদায়ক স্মৃতির মধ্যে ভারত সফরকালে দেয়া সরকারি ভোজ উল্লেখযোগ্য। ওয়েটার আমাকে বললো আমি কি নিরামিষভোজী? আমি ভাবলাম সে জানতে চাচ্ছে, আমি সবজি পছন্দ করি কী না।উত্তর দিলাম "হ্যাঁ"। সে আমার প্লেটের পাশে একটা ফুল রাখল এবং পুরো ডিনারে আমাকে সবজি ছাড়া কিছুই দেওয়া হলো না। চারপাশে চিকেন, ফিশ, বিফ, ইত্যাদির মাঝে আমি শুধু সবজি গিলে যাচ্ছিলাম। এ এ ঘটনার পর যখনই কেউ আমার হাতে একটা ফুল দেয় তখন আমি সন্দিহান হয়ে পড়ি।'

উপরের সংলাপটি সাইপ্রাসের আর্চ বিশপ ম্যাকারিয়াসের বিখ্যাত ইতালিয়ান সাংবাদিক ওরিয়ানা ফালাচিকে দেওয়া সাক্ষাৎকাররের অংশ। ষাট ও সত্তর দশকে তিনি বহু বিতর্কিত, একনায়ক রাষ্ট্র প্রধানদের সাথে সাক্ষাৎকার নেন।তার এই সাক্ষাৎকারসমূহ বই আকারে "ইন্টারভিউ উইথ হিস্ট্রি"নামে প্রকাশ করা হয়।

ওরিয়ানা ফালাচি লিখিত 'ইন্টারভিউ উইথ হিস্ট্রি' বইটির বাংলা অনুবাদ করেছেন অনুবাদক আনোয়ার হোসেইন মঞ্জু। যা আহমদ পাবলিশিং হাউস থেকে প্রকাশিত হয়েছে। বইটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৭৫ টাকা।

বইটিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে প্রতক্ষ্য এবং পরোক্ষভাবে অংশগ্রহণকারী শেখ মুজিবুর রহমান, ইন্দিরা গান্ধী, জুলফিকার আলী ভুট্টো ও হেনরি কিসিঞ্জারের, মধপ্রাচ্যের ফিলস্থিনী নেতা ইয়াসির আরাফাত ও ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী গোল্ড মেয়ার, লিবিয়ার একনায়ক মুয়াম্মার গাদ্দাফি, জর্ডানের বাদশাহ হোসেন, ইরানের বিপ্লবী আয়াতুল্লাহ খোমেনি ও স্বৈরশাসক রেজা শাহ পাহলভী, উত্তর ভিয়েতনামের কমিউনিস্ট নেতা জেনারেল গিয়াপ, দক্ষিণ ভিয়েতনামের  নেতা নগুয়েন ভ্যান থিউ, ইতিলিয়ান উপনিবেশ হতে ইথিওপিয়াকে মুক্তির নায়ক সম্রাট হাইলে সেলাসি, চীনের দে জিয়াং পিং, হিটলার পরবর্তী জনপ্রিয় জার্মান চ্যান্সেলর উইলিয়াম ব্রাণ্ডুট এবং সাইপ্রাসের আর্চ বিশপ ম্যাকারিয়াসের সাক্ষাৎকার  রয়েছে।

পরস্পর সম্পূর্ণ ভিন্ন মতালম্বী নেতাদের সাক্ষাৎকার, তাদের রুচি, সে সময়ের অবস্থা সম্পর্কে জানা যায় বইটিতে যা হয়তো খুব কম সংখ্যক বইতেই আছে। তিনি যাদের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন তাদের বেশিরভাগই কেউ দেশ হতে নির্বাসিত হয়েছেন, ক্ষমতা হারানোর পর ক্ষমতাশীলদের রায়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন কিংবা অভ্যুত্থানে মারা গেছেন।

তিনি তার দর্শনে তাদের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন যা অনেকটাই স্বাভাবিকের বিপরীত মনে হতে পারে।কারণ তিনি গতানুগতিকের বাইরে আসামিকে জেরা করার মতো সাক্ষাৎকার নিয়েছেন প্রশ্নবাণে তাদের আদর্শকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন এবং জেরার মাধ্যমে সত্যি তুলে আনার চেষ্টা করেছেন।নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি হতে বইটি তথ্য বহুল এবং খুবই মূল্যবান দলিল যা বিভিন্ন ঘটনায় রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে।

Mujib Borsho

সর্বশেষ সংবাদ

লিড