মঙ্গলবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
২০ এপ্রিল ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

৩ মাস বয়সী কন্যাকে হত্যা করলেন মা

উইমেনআই২৪ ডেস্ক: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে নিখোঁজের ২৪ ঘণ্টা পর তিন মাস বয়সী কন্যাশিশুর লাশ বাড়ির টয়লেটের ভেতর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নুর হাওয়া নামের শিশুটিকে জীবন্ত অবস্থায় টয়লেটের ভেতরে ফেলে হত্যা করেন পাষণ্ড মা। এ ঘটনায় হত্যার দায় স্বীকার করায় নিহতের মা তানজিলা বেগমকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রবিবার বিকালে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ধুমাইটারী (জকরীপাড়া) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে আটক তানজিলা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাড়ির টয়লেটের ভেতর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার তানজিলা বেগম ওই গ্রামের নুরুল ইসলামের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল শনিবার বিকালে ঘরের ভেতর থেকে নিখোঁজ হয় নুর হাওয়া নামের শিশুটি। আশপাশে ও প্রতিবেশীর বাড়িতে সবাই খোঁজ করেও সন্ধান মেলেনি। এরপর শিশুটিকে না পেয়ে রাতেই থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন শিশুটির বাবা নুরুল ইসলাম। নিখোঁজ শিশুর সন্ধান না পেয়ে আহাজারি ও কান্নায় ভেঙে পড়েন তার বাবা ও পরিবারের লোকজন। কিন্তু শিশুটির মায়ের নীরব ভূমিকা ও আচরণে সন্দেহ হয় সবার। পরে পরিবার ও স্থানীয়রা শিশুটির মা তানজিলা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ ও চাপ প্রয়োগ করলে টয়লেটে ফেলে হত্যার কথা স্বীকার করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাড়ির টয়লেটের ভেতর থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। এতে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকার করায় শিশুটির মাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যান। তবে, কী কারণে শিশুটিকে জীবন্ত অবস্থায় টয়লেটে ফেলে হত্যা করা হয়েছে তা জানায়নি। কিন্তু মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে শিশুটিকে হত্যা করেছেন বলে স্বীকার করেছে অভিযুক্ত শিশুর মা।

প্রতিবেশীরা বলছে, ওই নারী কখনো মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল না। তিনি সুস্থ ও স্বাভাবিক আছেন। পারিবারিক কলহে অশান্তির কারণে স্বামীর সংসার না করতেই শিশুটিকে হত্যা করেন। যাতে এই শিশুটি তার কাছে বোঝা না হয়। এর আগেও ওই নারীর একাধিক বিয়ে হয়েছিল। তার আগের স্বামীর একটি ছয় বছরের কন্যাসন্তান আছে। সে ওই নারীর সাথে এখানেই থাকেন বলে জানা গেছে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহিল জামান তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Mujib Borsho

সর্বশেষ সংবাদ

শীর্ষ সংবাদ:
হেফাজতের নেতাদের গণগ্রেফতার করা হচ্ছে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         সোনারগাঁও থানার ওসিকে বাধ্যতামূলক অবসর         সরিষাবাড়ীতে মামলার সাক্ষীর উপর হামলা         সততার উদাহরণ হলেন এএসআই আবদুল হাকিম         ঝাঁলমুড়ি বিক্রি করে চলে মর্জিনার সংসার         ‘কৃষি আমাদের উন্নয়নের সবচেয়ে বড় মাধ্যম’         নাভালনির মৃত্যু হলে দায় রাশিয়াকেই নিতে হবে: যুক্তরাষ্ট্র         করোনায় মারা গেলে ব্যাংকার পাবেন ৫০ লাখ টাকা         মাস্টারশেফে বাংলাদেশি নারীর জয়         করোনা আক্রান্ত মনমোহন সিং         টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী         সালমা হাসানের সাপ্তাহিক ভাবনা         ‘মামুনুল হকের কর্মকাণ্ড দেশ ও ধর্মের জন্য হুমকিস্বরূপ’         ধর্মীয় নেতাদের নামে মিথ্যা মামলা হচ্ছে: ফখরুল         নূরের বিরুদ্ধে পল্টন থানায় আরেকটি মামলা         ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশির প্রাণহানি         বাক্বিতণ্ডার ব্যাপারে ওই চিকিৎসক যা বললেন         ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ         দুই নারী নিয়ে মুখ খুললেন মামুনুল         করোনামুক্ত আকরাম খান