সোমবার, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
২৩ নভেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

পরিবারের সাপোর্ট পেলে প্রতিটি নারী কাজে শতভাগ সফল হতে পারে : আফসানা হক

পরিবারের সাপোর্ট পেলে প্রতিটি নারী কাজে শতভাগ সফল হতে পারে : আফসানা হক

খাদিজা খানম তাহমিনা : আফসানা হক। কুমিল্লার মেয়ে। বাবা মায়ের আদরের ছোট সন্তান। ইংরেজি আর বিজ্ঞানে ভালো নাম্বার পেতেন বলে বাবার ইচ্ছে ছিল মেয়ে ডাক্তার হবে। অংক বরাবরই অপছন্দ ছিল। যে জন্য মেডিকেল কলেজে পড়তে চাইতেন। তারপর হয়ে গেলেন মেডিকেলের আরেক শাখার চিকিৎসক ডেন্টিস্ট। বাস্তবজীবনে ধীরে ধীরে এই প্রফেশনকে ভালোবাসার জায়গায় নিয়ে গেছেন।

তিনি দন্ত চিকিৎসক হিসেবেই থেমে থাকেননি। বর্তমানে কাজ করছেন দেশীয় শাড়ি নিয়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার পেইজের নাম 'পল্লীগাঁথা'। এই পল্লীগাঁথা নিয়ে এগুতে চান অনেকদূর।

উইমেনআই২৪ ডটকম থেকে কথা হয় এই গুণী উদ্যোক্তার সঙ্গে যিনি একাধারে একজন দন্ত চিকিৎসকও।

১. আপনার উদ্যোক্তা জীবনের শুরুটা কিভাবে?

আফসানা হক : উদ্যোক্তা হওয়ার কোনো পূর্বপরিকল্পনা ছিলোনা। বলতে গেলে শুরুটা পুরোটাই শখের বশে। খুব বেশিদিন যদিও হয়নি। ধীরে ধীরে অনেকদূর এগিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে আছে।

২. কি কারণে মনে হয়েছিল, আপনি একজন উদ্যোক্তা হবেন?

আফসানা হক : আসলে সেরকম কোন কারণ নেই, ইচ্ছেটা ছিল। করোনাকালীন সময়ে যখন একদমই বাসায় সময় কাটছিল না, তখন মনে হলো শুরুটা করা যাক। যেহেতু যে কোন কাজে শুরুতে বেশি সময় দিতে হয়। আর ওই সময়টায় অন্য সব কিছু থেকে কিছুটা বিরতি ছিল। সেই ভাবনা থেকেই শুরু।

৩. শুরুর চ্যালেঞ্জগুলো কি ছিল (বিনিয়োগ, সহযোগিতা ইত্যাদি) কিভাবে মোকাবেলা করেছেন?

আফসানা হক : এইদিক থেকে আমি নিজেকে অনেক ভাগ্যবতী মনে করি। তেমন কোন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়নি। স্বল্প বিনিয়োগে শুরুটা হয়েছিল। যেটা আমি এবং আমার পার্টনার মিলে করেছিলাম।

আর সহযোগিতার কথায় বলবো, সম্পূর্ণর্টাই আমার স্বামীর এবং পাশাপাশি আমার বড় বোন। তাদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

৪. আপনার সফলতার পেছনে কোনটার প্রভাব ছিলো?

আফসানা হক : সফলতা তো আসলে এত অল্প সময়ে বলা যাবেনা। হয়তো একটা সময় পর এ ব্যাপারে বলতে পারবো। স্বপ্নের শুরুটাই আমার কাছে এখন সফলতা। পরিবারের সাপোর্ট পেলে প্রতিটি নারী তাঁর কাজে শতভাগ সফল হতে পারে।

৫. আপনার ব্যবসা পদ্ধতি কি?

আফসানা হক : আমার ব্যবসাটা যৌথভাবে পরিচালিত হচ্ছে। আমার মেডিকেল লাইফের খুব কাছের একজন বান্ধবী এখন আমার বিজনেস পার্টনার। ব্যবসা পদ্ধতি বলতে আমার মনে হয়, শুরুটা করার আগে-পিছে পজিটিভ নেগেটিভ দিকগুলোর একটা তালিকা তৈরি করতে হবে, আমার চিন্তা- ভাবনা, পারিপার্শ্বিক সাপোর্ট, কতটাকা দিয়ে কি করবো, কতটা সময় দিবো, কীভাবে প্রডাক্ট কালেক্ট করবো, কীভাবে ক্রেতার কাছে পৌঁছাবো - টোটাল বিষয়টা হাতে কলমে পরিকল্পিত হতে হবে।

৬. আপনার সফলতার পিছনে উল্লেখযোগ্য দিকগুলো কি?

আফসানা হক : যতটুকু এগিয়ে যাচ্ছি তার পেছনে আমার হ্যাল্পফুল পার্টনারের ভূমিকা রয়েছে। রয়েছে পরিবারের ভূমিক। একইসঙ্গে আমার ইচ্ছা।

৭. সামনে কি কি পরিকল্পনা আছে, মানে কি করতে চান, বা আপনার গোল কি?

আফসানা হক : সামনে অনেক পরিকল্পনা আছে, কিন্তু আমি সবকিছু একটু সময় নিয়ে করতে চাই। ইচ্ছে আছে দেশীয় শাড়ি, গহনাকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার এবং তার মধ্যে নতুনত্ব সৃষ্টি করার।

৮. উদ্যোক্তার মূল কাজ সিদ্ধান্ত নেয়া। প্রতিটি উদ্যোক্তা নিজস্ব কিছু স্টাইল, প্যাটার্ন বা ফর্মুলা থাকে। আপনি সিদ্ধান্ত কীভাবে নেন?

আফসানা হক : আমাদের বেশিরভাগ সিদ্ধান্ত হয় খুব চটজলদি। আমি আর আমার পার্টনার একসঙ্গে কথা বলে যে কোন সিদ্ধান্ত নেই। এখানে একটা কথা না বললেই নয় সেটা হচ্ছে, আমাদের দুজনের মধ্যে একটা মজার ব্যাপার ঘটে সেটা হচ্ছে আমাদের চিন্তাভাবনা, পছন্দ, ইচ্ছে কেমন করে যেন একদমই একরকম হয়ে যায়। তাই সিদ্ধান্তগুলো নিতে সুবিধা হয়।

৯. ব্যবসায়ে বিজ্ঞাপন একটা বিশাল ভূমিকা। বিজ্ঞাপনের জন্য কোন কোন মাধ্যম গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন?

আফসানা হক : বিজ্ঞাপন অবশ্যই বিশাল ভূমিকা পালন করে। তবে অনলাইনভিত্তিক ব্যবসার ক্ষেত্রে প্রচারণাটা মিডিয়াতেই ভালো হয়। আবার অফলাইনের প্রচারণায় ভিন্নতা জায়গা ভেদে হয়।

১০.দেশের মধ্যে সম্ভাবনা কেমন?

আফসানা হক : আমি কাজ করছি দেশীয় শাড়ী নিয়ে। আমাদের দেশে এখন দেশীয় পন্য অনেক সম্ভাবনাময়। কেউ মন থেকে চাইলে অনেক দূর এগুনো সম্ভব। আমিও এই দেশীয় শাড়ি নিয়ে অনেকদূর যেতে চাই।

১১. উদ্যোক্তাদের সফলতার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে, তার মধ্যে উদ্যোক্তার ব্যক্তিগত ও সামাজিক জীবন অন্যতম। আপনার ক্ষেত্রে বিষয়টি কি?

আফসানা হক : অবশ্যই সফলতার পেছনে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে ব্যক্তিগত এবং সামাজিক জীবন। সেক্ষেত্রে পরিবার যদি সাপোর্টিভ হয় আর বাইরের লোকের কথা যদি কর্ণপাত না করি তাহলে কোন বাধাই সমস্যা করতে পারেনা।

১২. আপনার পরিবার সম্পর্কে বলেন।

আফসানা হক : আমার পরিবার বলতে আমার স্বামী যিনি পেশায় একজন বস্ত্র প্রকৌশলী। বর্তমানে একটি বায়িং হাউজে কর্মরত আছেন। আর আমার দুই বছর বয়সী পুত্রসন্তান আদিয়াত।

১৩. উদ্যোক্তা হতে গিয়ে এমন কোন কষ্ট পেয়েছেন, যা আপনাকে এখনও কষ্ট দেয়?

আফসানা হক : এখানে একটা ব্যাপার বলবো যদিও এটার কারণ আমি জানিনা। কোন এক অজানা কারণে কেউ কেউ কাজ নিয়ে হিংসে করে। স্বতঃস্ফূর্তভাবে তারা কখনো এগিয়ে আসেনা কোন সাহায্যে। নিজের সবকিছু নিজের মত করেই গুছিয়ে নিতে হয়। এটা খুব পীড়া দেয়।

১৪. যে সফলতাটা আপনি সবাইকে বলতে সাচ্ছন্দ্যবোধ করেন.....

আফসানা হক : সফলতা আমার কাছে অনেকটাই আপেক্ষিক। এই অল্প সময়ে আমার কাছে সফলতা হচ্ছে আমাদের নতুন পরিচয়, যখন কেউ বলে অনেক ভালো করছো এগিয়ে যাও, যখন কেউ আমাদের পেজ-এ ভালো রিভিউ দেয়, আর এই যে আপনাদেরকে নিজেদের সম্পর্কে বলতে পারছি সবই সফলতার অংশ।

১৫. নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য শুরু করতে বিনিয়োগ কতখানি সমস্যা বলে আপনি মনে করেন?

আফসানা হক : শুরুর বিনিয়োগটা করতে হবে খুব বুঝে শুনে। হঠাৎ করে না বুঝে অনেক টাকা বিনিয়োগ না করাই ভালো। অনেক বেশি প্রোডাক্ট প্রথমেই স্টক করার মনমানসিকতা না রাখা। বাকিটা ধীরে ধীরে ব্যবসায়ে লাভের অবস্থা বিবেচনা করে বিনিয়োগ করা উত্তম।

১৬. নতুন উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্য কি বলতে চান..?

আফসানা হক : যারা নতুন, তাদের বলবো আগে ভালোভাবে জেনে বুঝে তারপর যে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অনলাইনে (গুগলে) এখন যেকোন বিষয়ে পড়ালেখা করা যায়। তাই আগে খুঁজে বের করতে হবে কোন জিনিসের প্রতি নিজের ভালোবাসা কাজ করছে সেটাকে নিয়েই এগিয়ে যেতে হবে। শুধু থাকতে হবে প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি।

Mujib Borsho

সর্বশেষ সংবাদ

লিড

শীর্ষ সংবাদ:
জলের আঁচড়         ফ্রিল্যান্সাররা ‘ভার্চুয়াল আইডি কার্ড’ পাচ্ছেন বুধবার থেকে         ঘুমন্ত বাবা-মায়ের পাশ থেকে গায়েব সেই শিশুর লাশ উদ্ধার         বিশ্বে একদিনে করোনা সংক্রমণের নতুন রেকর্ড         পারমাণবিক দুর্যোগ মোকাবিলায় ‘গাইডলাইন’         সৌমিত্রের স্মৃতিমন্থন করে টুইট করলেন অমিতাভ বচ্চন         ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শের এক বিশ্বস্ত সহকর্মীকে হারালাম’: প্রধানমন্ত্রী         সাবেক ডেপুটি স্পিকার শওকত আলীর ইন্তেকাল         ফের সেলফ আইসোলেশনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস         স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে চাকরির বিজ্ঞপ্তি         শীতে রূপচর্চায় সরিষা তেল         প্রথমবারের মতো বাইডেনের জয় স্বীকার করলেন ট্রাম্প         কিংবদন্তী সৌমিত্রের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         না ফেরার দেশে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়         আলোচনায় মৌসুমী         ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির বৈঠক         ছেলের ছবিতে সোফিয়া লরেনের প্রত্যাবর্তন         ফেসবুকের নতুন চমক 'ভ্যানিস মোড'