শুক্রবার, ১৪ কার্তিক ১৪২৭
৩০ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
যুক্ত থাকুন

আর্কাইভ
সর্বশেষ

মাউশির নির্দেশনা: বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হতে পারে

মাউশির নির্দেশনা: বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হতে পারে

ওমেনআই ডেস্ক : সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়— সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমন কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও শেয়ার, প্রকাশ নিয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) সতর্কতায় বিরূপ পরিস্থিতির তৈরি হতে পারে বলে মনে করছেন শিক্ষাবিদ ও বিশিষ্টজনরা।

তারা মনে করছেন, এটা সরকারের নির্দেশ নাও হতে পারে। সরকারকে খুশি করতে শিক্ষা প্রশাসনের কেউ অতি উৎসাহী হয়ে এই নির্দেশ দিয়ে থাকতে পারেন।

তবে এই নির্দেশনা শিক্ষার্থীদের জন্য নয় দাবী করে মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম মো. ফরুক ডয়চে ভেলেকে বলেন, এই নির্দেশনা শিক্ষক ও কর্মচারিদের জন্য, ছাত্রদের জন্য নয়। সংবাদমাধ্যমে ভুল খবর এসেছে। যারা সরকারি কর্মচারী তাদের জন্য। ছাত্ররা তো আর সরকাারি কর্মচারি নয়।

অথচ মাউশির নিজের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আদেশে শিক্ষার্থীদের কথাও স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে। সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয় এমন কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও ফেসবুক-টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করা থেকে শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের বিরত থাকতে বলা হয়েছে মাউশির ওই নির্দেশনায়।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, পোস্ট অনুমোদন করার সময় সরকারি নীতিমালা পরিপন্থি, নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান, দপ্তর ও সংস্থার বিপক্ষে অবস্থানকারী কোনো পোস্ট অনুমোদন করবেন না। অন্যথায় পোস্টদাতা ও অ্যাডমিন উভয়ের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের এ ব্যাপারে দৃষ্টি রাখতে বলা হয়েছে।

এটাকে অতি উৎসাহীদের কাজ মন্তব্য করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. শান্তনূ মজুমদার ডয়চে ভেলেকে বলেন, এটা সরকারের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নাও হতে পারে। যেটা বাস্তবতা, যেটা অনিবার্য সেটাকে তো বাদ দেয়া যায়না। এটা কাউন্টার প্রোডাকটিভ, এটা ব্যাক ফায়ার করতে বাধ্য। এটা কোনো কাজের সিদ্ধান্ত নয়। এটা অস্বস্তি সৃষ্টি করবে।

এ বিষয়ে শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বলেন, ভাবমূর্তির সংজ্ঞা কী তা তো স্পষ্ট নয়। সরকারের কোনো কাজের সমালোচনা করা মানে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা নয়। সরকারের সমালোচনা করতে দেয়া উচিত। এতে সরকার বুঝতে পারবে প্রকৃত অবস্থা কী৷ সমালোচনা বন্ধ করতে চিঠি দেয়া কোনো ভালো কাজ নয়।

তার মতে, এই ধরনের নির্দেশনা শিক্ষক ও ছাত্রদের মধ্যে ভীতির সৃষ্টি করবে। তারা কথা বলতে ভয় পাবে। কারণ সরকার কোনটাকে খারাপ হিসবে নেবে তারা তো তা জানে না। সূত্র : ডয়চে ভেলে

Mujib Borsho

সর্বশেষ সংবাদ

লিড

শীর্ষ সংবাদ:
পাকিস্তানের চেয়ে তিন গুণ রিজার্ভ নিয়ে নতুন মাইলফলকে বাংলাদেশ         পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ         রান্না শেষে ঘরে ঢুকে ওঁত পেতে থাকা ধর্ষকের কবলে বিধবা         নিঃশ্বাস পরীক্ষার মাধ্যমে এক মিনিটেই মিলবে করোনার ফল         লালমনিরহাটে কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগ, এক জনকে পিটিয়ে হত্যা         ফাঁকা বাড়ি একা কিশোরী, ধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’         মহামারির ঝুঁকি সত্ত্বেও স্কুল খোলা রাখার আহ্বান জাতিসংঘ ও বিশ্ব ব্যাংকের         দেশের পক্ষে সরাসরি যুদ্ধে নামছেন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী         নোটিশ প্রত্যাহার করে জনস্বাস্থ্য পরিচালকের দুঃখ প্রকাশ         ফ্রান্সে গির্জায় ছুরিকাঘাতে নিহত ৩         পোশাক নিয়ে বিজ্ঞপ্তি, জনস্বাস্থ্য পরিচালককে শোকজ         চলতি বছরে ধর্ষণের শিকার ১৩০৭, গণধর্ষণের শিকার ২৭০ জন         বাংলাদেশে গণতন্ত্র এখন প্রায় অনুপস্থিত: মির্জা ফখরুল         মাস্ক ব্যবহারে করা যাবে না যেসব ভুল         শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ বাসস্থানে থাকার নির্দেশ         সরকার দেশকে আরো মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী         নারীর হিজাব, পুরুষের টাকনুর ওপর পোশাক পরার বিজ্ঞপ্তি জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে         গেজেট প্রকাশ : মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ ব্যবহার করতে হবে         ‍‍`করোনার ২য় ওয়েব মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ‍‍`: স্বাস্থ্যমন্ত্রী         কাজলের বিয়ের তোড়জোড় শুরু         ফ্রান্সে দ্বিতীয় দফায় লকডাউন ঘোষণা