ঢাকা, বাংলাদেশ

সোমবার, মাঘ ১৬ ১৪২৯, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩

English

বৃত্তের বাইরে

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদ

উইমেনআই২৪ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:৩৩, ৬ জুলাই ২০২২; আপডেট: ১৮:২৪, ১৬ জুলাই ২০২২

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদ

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি

দেশের অসাম্প্রদায়িক সংস্কৃতি বিনষ্ট করার লক্ষ্যে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের শিক্ষকদের অবমাননা, হত্যা ও মুক্তমনা সাংস্কৃতিক কর্মীর উপর সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়েছে ৬৬ নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠনের প্ল্যাটফরম- সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো প্রতিরোধ কমিটির পক্ষে নারীবাদি সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, সাভারের আশুলিয়ার  ইউনুস আলী স্কুল এন্ড কলেজে মেয়েদের উত্যক্ত করার কারণে শাসন করায়  কলেজের শিক্ষক ও শৃঙ্খলা কমিটির সভাপতি উৎপল সরকারের দশম শ্রেণীর ছাত্র আশরাফল ইসলাম জিতুর প্রহারে নিহত হওয়া, নড়াইলে ধর্ম অবমাননার দোহাই দিয়ে পুলিশের উপস্থিতিতে শিক্ষক ও ছাত্রের গলায় জুতার মালা পরানোর মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা- দেশের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিক্ষক, গবেষক, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্য পুস্তক বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক রতন সিদ্দিকী ও তাঁর স্ত্রীর উপর হামলা সহ দেশে একের পর এক সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা ঘটেই চলেছে।  কিছুদিন আগেও আমরা লক্ষ্য করেছি  ধর্ম অবমাননার দোহাই তুলে সিলেটের গোপালগঞ্জের শিক্ষক সুনীল চন্দ্র দাশ, মুন্সিগঞ্জের শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মন্ডল, চট্টগ্রামের শিক্ষক তুষারকান্তি বড়–য়া,নওগাঁ মহাদেবপুরের শিক্ষিকা আমোদিনী পাল সহ আরও কয়েকজন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের শিক্ষকের উপর সাম্প্রদায়িক হামলা করা হয়।  

এইসব ঘটনা আপাতদৃষ্টিতে বিচ্ছিন্ন প্রতীয়মান হলেও প্রতিটি ঘটনা মূলতঃ সাম্প্রদায়িকতার একই সুঁতোয় বাঁধা মন্তব্য করে বিবৃতিতে বলা হয়, একশ্রেণীর উগ্রমৌলবাদী গোষ্ঠী তাদের হীন উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতে অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে একের পর এক এ ধরনে হামলা চালাচ্ছে। 

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদি এই গোষ্ঠী বিভিন্ন সময়ে দেশে সাম্প্রদায়িক অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি করে আসছে যা দেশের জনগণের মধ্যে আতংক সৃষ্টি করছে, মানুষে মানুষে সম্প্রীতির মানসিকতা ও দৃষ্টিভঙ্গিকে পরিবর্তন করার মাধ্যমে  সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। সাম্প্রতিক ঘটনাসমূহ পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায়, প্রতিটি ঘটনাই সাজানো এবং পরিকল্পিত। তবে এ সকল ঘটনায় প্রকৃত অপরাধীদের স্বরূপ সবার সামনে উন্মোচন করা হচ্ছেনা। ভুক্তভোগীদের নিরাপত্তা ও অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা হচ্ছেনা। যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে প্রমাণিত প্রকৃত অপরাধীরা বহাল তবিয়তে রয়েছে আর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরপরাধ মানুষদের সাম্প্রদায়িক উস্কানিদাতা হিসেবে চিহ্নিত করে ধর্ম অবমাননার দায়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে। একই সাথে তাদের পরিবারও বিভিন্নভাবে প্রকৃত অপরাধী ও প্রশাসনের দ্বারা হেনস্থার শিকার হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসকল ব্যক্তি ও  তাদের পরিবারকে বিনা কারণে অপরাধী হিসেবে জনসম্মুখে তুলে ধরার মতো অগ্রহণয়োগ্য কাজ অব্যাহত রেখেছে। সরকার ও প্রশাসনের দিক থেকে এই ধরনের সাম্প্রদায়িক হামলার পুনরাবৃত্তি রোধে সঠিক সময়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করার কারণে এটি সমাজের মধ্যে ক্রমেই বেড়েই চলেছে যা মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ভুলুন্ঠিত করছে।

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি এই সকল ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে প্রত্যেকটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিবৃতিতে। একইসঙ্গে যে কোনো ধরনের উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত করার জন্য সমাজের সকল সচেতন মহলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে বিবৃতিতে।

ইউ

শুটিংয়ে দগ্ধ অভিনেত্রী শারমিন আঁখি

যারা পাচ্ছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২১

আওয়ামী লীগ কখনো পালায় না: প্রধানমন্ত্রী

এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ ৮ ফেব্রুয়ারি

একাদশে চূড়ান্ত ভর্তির সময় বাড়ল

গুলিবিদ্ধ ওড়িশার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মারা গেছেন

ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে ইতিহাসের সাক্ষী ভারতের মেয়েরা

সাবরিনা এসএসসি পাস করেন ৮ বছর বয়সে

শিশুদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তোলার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

অন্তর্বর্তীকালীন নির্বাচনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান

দেশের প্রথম স্কুল অ্যাপ ‘শিক্ষায়তন’

বাবার কেনা কেক খেয়ে দুই বোনের মৃত্যু

সিৎসিফাসকে হারিয়ে নাদালের পাশে জোকোভিচ

গ্রামজুড়ে শুধুই ‘জ্যান্ত’ পুতুল! 

‘বিদ্যুৎ, গ্যাস ও তেলের দাম বাড়াতে পারবে সরকার’

Social Islami Bank Limited